বাংলাদেশকে হারিয়ে সেমি নিশ্চিত করেছে ভারত। কিন্তু সেমির লড়াইয়ে মাঠে নামার আগেই বড় দুঃসংবাদ পেতে পারে ভারতীয় দল। নিষিদ্ধ হতে পারেন দলের অধিনায়ক এবং সেরা ব্যাটসম্যান বিরাট কোহলি। মঙ্গলবার (২ জুন) বাংলাদেশের বিপক্ষেও খেলার মাঠে সবসময়ই আক্রমণাত্মক নেতিবাচক ঘটনা ঘটিয়েছেন ভারতীয় অধিনায়ক। আর তাই নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হতে পারে তাকে। কোহলির নামের পাশে যোগ হতে পারে ডিমেরিট পয়েন্ট। যদিও ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসি এখনো কোনো সিদ্ধান্ত জানায়নি। যদি শাস্তির ঘোষণা আসে তাহলে সেমিফাইনালের আগেই নিষিদ্ধ হতে পারেন বিশ্বের অন্যতম এই ব্যাটসম্যান।

চলতি বিশ্বকাপে আফগানিস্তানের বিপক্ষেও আম্পায়ারদের সঙ্গে অসদাচরণ করেন কোহলি। ঘটনার জেরে তাঁকে জরিমানা করে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসি। এলবিডব্লুর আবেদনে আম্পায়ার আলিম দার সাড়া না দেওয়ায় আক্রমণাত্মক হয়ে ওঠেন ভারতীয় অধিনায়ক। এতে ম্যাচের পর আইসিসি আচরণবিধির ২.১ ধারা অনুযায়ী অতিরিক্ত আবেদনের জন্য ম্যাচ ফির ২৫ শতাংশ জরিমানা করা হয় কোহলিকে। এছাড়া কোহলির নামের পাশে একটি ডিমেরিট পয়েন্টও যুক্ত হয়। তারও আগে ২০১৮ সালের জানুয়ারিতে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে টেস্ট ম্যাচে একটি ডিমেরিট পয়েন্ট পেয়েছিলেন তিনি। সব মিলিয়ে কোহলি নামের পাশে যুক্ত আছে দুই ডিমেরিট পয়েন্ট। আর একটি যোগ হলেই নিষেধাজ্ঞার মুখে পড়বেন তিনি।

আইসিসির নিয়ম অনুযায়ী, দুই বছরের ব্যবধানে লেভেল টু ভাঙার অপরাধে তিনটি বা চারটি ডিমেরিট পয়েন্ট পেলে এক টেস্ট অথবা দুই ওয়ানডে কিংবা টি-টোয়েন্টিতে নিষিদ্ধ হবেন কোনো খেলোয়াড়। সেক্ষেত্রে তিনটি বা চারটি ডিমেরিট পয়েন্ট পেয়ে গেলে একটি ওয়ানডের জন্য নিষিদ্ধ হতে পারেন ভারতীয় অধিনায়ক।