এক মাসের বেশি সময় পর মসজিদে জামাতে নামাজ আদায় করেছেন দেশের ধর্মপ্রাণ মানুষ। শারীরিক দূরত্ব মেনে শর্তসাপেক্ষে মসজিদগুলোতে জোহরের নামাজ জামাতের সহিত আদায় করেন তারা। ধর্ম মন্ত্রণালয়ের বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখিত নির্দেশনা মেনেই জোহরের নামাজ আদায় করেন মুসল্লিরা।

বৃহস্পতিবার (৭ মে) দুপুরে রাজধানীর বায়তুল মোকাররমসহ বিভিন্ন মসজিদে মুসল্লিদের নামাজ আদায় করতে দেখা যায়। এসময় মসজিদের প্রবেশ ও ওজু করার ক্ষেত্রে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নির্দেশনা মেনে সংক্রমণ প্রতিরোধে সাবান ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করতে দেখা গেছে। পাশাপাশি নামাজ পড়ার সময়ও নির্দিষ্ট দূরত্ব বজায় রেখে নামাজ পড়েন তারা। মুসল্লিরা জানান, সংক্রমণ প্রতিরোধে কেবল মাত্র ফরজ নামাজ মসজিদে আদায় করবেন তারা। অন্যদিকে মসজিদ কমিটির সদস্যদের দাবি, করোনাভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে স্বাস্থ্য ও ধর্ম মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা অনুযায়ী জীবাণুনাশক স্প্রে করার পাশাপাশি সব ধরনের ব্যবস্থা নিয়েছেন তারা। করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে গত ৪ এপ্রিল ধর্মমন্ত্রণালয় এক প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে মসজিদে দশজনের অধিক ব্যক্তির অংশ গ্রহণে জামাত আদায়ে নিষেধাজ্ঞা জারি করে। এরপর ২৩ এপ্রিল আরেক বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে মসজিদে পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ, জুমা এবং রমজান মাসের তারাবির জামাত সীমিত আকারে আদায়ের জন্য নির্দেশনা দেয়া হয়। বুধবার (৬ মে) আরেক আদেশের মাধ্যমে সে নিষেধাজ্ঞা তুলে নিলে মুসল্লিরা আজ জোহর থেকে জামাতে নামাজ আদায় শুরু করেন।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: