বরগুনার পাথরঘাটায় চিন্তিত উপজেলা প্রশাসন ও স্বাস্থ্য বিভাগ। কারণ হিসেবে জানা যায়, রাজধানী ঢাকা থেকে আসা করোনা আক্রান্ত এক দোকানদার ঈদের কেনাকাটা করতে আসা মানুষের কাছে সারাদিন জুতা বিক্রি করেছেন, এতে করে কতোজন যে প্রাণঘাতী এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে টা নিয়ে সন্দিহান পুরো উপজেলা।

পাথরঘাটা বণিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক অরুণ কর্মকার জানান, করোনার মধ্যে ঢাকা থেকে আসা ব্যক্তিদের তালিকায় অন্তর্ভুক্ত অনেকেই প্রকাশ্যে দোকানে বেচাকেনা করেছেন। যা অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ। এদের মধ্যে সংক্রমিত জুতার দোকানের মালিকের নামও ছিল। যিনি করোনাভাইরাস আক্রান্ত হয়েও দোকানদারি করেছেন। তিনি আরও জানান, করোনা পজিটিভ আসা দোকান মালিকের থেকে কতজন যে সংক্রমিত হয়েছে তার কোন হিসাব নেই। প্রয়োজনে করোনা প্রাদুর্ভাব ঠেকাতে আবারও পাথরঘাটা শহর লকডাউন চান তিনি। এ বিষয়ে পাথরঘাটা থানার ওসি মোহাম্মদ শাহাবুদ্দিন জানান, ‘বণিক সমিতির মাধ্যমে ৯ জনের একটি তালিকা উপজেলা প্রশাসনের মাধ্যমে হাত পেয়ে সকলের কাছে গিয়ে হোম কোয়ারেন্টাইনে মানতে বলা হয়েছে। তবে তারা কোয়ারেন্টান না মেনে ব্যবসা পরিচালনা করেছেন তা বণিক সমিতি থেকে আমাদের জানানো হয়নি।’

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: