দেশপ্রেমের নামে বাংলায় দাঙ্গা লাগানোর চেষ্টা হচ্ছে। পুলওয়ামায় হামলার পর এমনটাই অভিযোগ তুলছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আরএসএস ও বিশ্ব হিন্দু পরিষদ এই কাজ করছে বলেও অভিযোগ তুলেছেন তিনি।

সোমবার নবান্ন থেকে সাংবাদিক বৈঠক করে এ অভিযোগ তোলেন মুখ্যমন্ত্রী। এই পরিস্থিতির মোকাবিলা করার নির্দেশও দেন তিনি।

মমতা আরও বলেন, পুলওয়ামায় যে হামলার ঘটনা ঘটেছে তার শাস্তি চান তিনি। সন্ত্রাসবাদের কোনও ক্ষমা নেই বলেও উল্লেখ করেন তিনি। তবে, কী কারণে এই ঘটনা ঘটল সেটা জানতে চেয়ে জবাব চেয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘আগাম সতর্কতা থাকা সত্বেও কেন সেদিন কোনও ব্যবস্থা নেওয়া হল না? কেন একই দিকে ৭১টা গাড়ির কনভয় যাচ্ছিল?’

হামলার ঘটনার পর থেকে রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় অশান্তির ঘটনা ঘটছে বলে অভিযোগ তুলেছেন তিনি। তিনি বলেন, মাঝরাতে জাতীয় পতাকা নিয়ে রাস্তায় বেরোচ্ছে সঙ্ঘের লোকেরা। এগুলো সব আরএসএসের ‘গেমপ্ল্যান’ বলেও উল্লেখ করেছেন তিনি।

গত জানুয়ারিতে মার্কিন গোয়েন্দাদের একটি রিপোর্টে বলা হয়েছিল, লোকসভা নির্বাচনের আগে ভারতে ধর্মীয় অশান্তি তৈরি হবে। সেকথা এদিন উল্লেখ করে মমতা বলেন, সেই পরিস্থিতিই তৈরি হচ্ছে ক্রমশ। এই পরিকল্পনার প্রমাণও তাঁর কাছে আছে বলে উল্লেখ করেছেন মমতা।

উল্লেখ্য, রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় বিতর্কিত ফেসবুক পোস্ট ঘিরে অশান্তি শুরু হয়েছে। অনেক ক্ষেত্রেই ফেসবুক পোস্টের জেরে থানায় অভিযোগ দায়ের হচ্ছ। অনেকের বাড়িতে গিয়ে অশান্তির ঘটনাও ঘটছে। এরপরই এই ইস্যুতে মুখ খুললেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

রাজ্যে মাধ্যমিক পরীক্ষা চলছে, তাই এই ধরনের পরিস্থিতি যাতে তৈরি না হয়, সেই আর্জিই জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: