করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের সিকিৎসা ও নানামুখী পদক্ষেপ নিয়ে আক্রান্তদের জীবন রক্ষা ও করোনা প্রাদুর্ভাব নিয়ন্ত্রনে অগ্রনী ভুমিকা পালন করছে কুমিল্লা।

২০২০ সালে করোনা প্রাদুর্ভাব শুরু হওয়ার পর কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ ও সদর হাসপাতালের পর এবার করোনা চিকিৎসায় যুক্ত হলো প্রাইভেট মেডিকেল কলেজ ইস্টার্ন মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল। বুধবার (২১ এপ্রিল) থেকে ৫০ বেডে ৫টি হাইফ্লো ন্যাজল ক্যানুলা নিয়ে করোনা আক্রান্তদের চিকিৎসা সেবা শুরু করে হাসপাতালটি। কতৃপক্ষ জানান, স্বল্প সময়ে সবগুলো বেডে হাইফ্লো ন্যাজল ক্যানুলা ও ১০ টি আইসইউ সংযুক্ত করা হবে।

বুধবার সকালে ইস্টার্ন মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে করোনা ওয়ার্ড উদ্বোধন করেন কুমিল্লা সদর আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহার। উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের বলেন, কুমিল্লা আবারো প্রমান করেছে কুমিল্লা সব সময় পথ দেখায়, তিনি বলেন ইস্টার্ন মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে করোনা ওয়ার্ড উদ্বোধন কুমিল্লার জন্য মাইলফলক।

করোনাভাইরাস সংক্রামন শুরুর পর ভয় আতঙ্কের মধ্যে করোন আক্রান্তদের চিকিৎসায় ২০২০ সালে ৩ জুন চট্টগ্রাম বিভাগে দ্বিতীয় ডেডিকেটেড কোভিড-১৯ হাসপাতাল কুমিল্লা মেডিকেল কলেজে কার্যক্রম শুরু হয়। সেখানে ১৮ টি আইসিইউও ১১৬ টি সাধারণ বেডে করোনা আক্রান্তদের চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

বৃহত্তর কুমিল্লার ও পার্শবর্তী জেলাগুলো থেকেও করোনা আক্রান্তরা কুমিল্লা মেডিকেল কলেজে স্থাপিত ডেডিকেটেড কোভিড-১৯ হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ্য হয়েছেন এবং আইসিইউ সাপোর্টে জীবন রক্ষা হয়েছে অনেকের।

এ হাসপাতালে রয়েছে দু’টি পিসিআর ল্যাব ও একটি প্লাজমা থেরাপি ইউনিট। প্রথম দিকে করোনা রোগীর চাপে হিমশিম খেতে হয় এ করোনা হাসপাতাল কতৃপক্ষকে। মাঝখানে করোনার প্রাদুর্ভাব কিছুটা কমে আসলে করোনা হাসপাতালেও চাপ কমে অনেকটা। ২০২১ সালে করোনার দ্বিতীয় ধাপে আবারো বাড়তে থাকে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা। কুমিল্লা করোনাভাইরাস প্রতিরোধ কমিটি সিদ্ধান্ত নিয়ে কুমিল্লা সদর হাসপাতালে ৫০ বেডের করোনা ইউনিট চাল করে। এবার করোনা চিকিৎসায় এগিয়ে এসেছে তিনটি প্রাইভেট হাসপাতাল। বুধবার ইস্টার্ন মেডিকেল কলেজে ৫০ বেডের করোনা ইউনিট উদ্বোধন করা হয। দ্রুতই আরো দু’টি প্রাইভেট মেডিকের কলেজ সেন্ট্রাল ও ময়নামতি মেডিকেল কলেজে করোনা ইউনিট চালু করা হবে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, কুমিল্লা সিভিল সার্জন ডাঃ মীর মোবারক হোসাইন, ইস্টার্ন মেডিকেল কলেজের পরিচালক শাহ মোঃ সেলিম, অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. কলিম উল্লাহ, বিএমএর সাধারণ সম্পাদক ডা. আতাউর রহমান জসিম, স্বাচিবের সাধারন সম্পাদক ডা. মোরশেদুল আলম।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: