চট্টগ্রামের জিমাকে বিয়ে করে খুশি নেদারল্যান্ডের ডেনিস

চট্টগ্রামের তরুণী জিমা ও নেদারল্যান্ডের তরুণ ডেনিসের বিয়ের রিসিপশন অনুষ্ঠিত হলো মহানগরীর একটি রেস্টুরেন্টে। শনিবার (৬ আগস্ট) রাতে এই অনুষ্ঠানে জিমার পরিবারের আত্মীয় স্বজনসহ দুই শতাধিক অতিথি অংশ নেন।

ডেনিস নেদারল্যান্ডে একজন সাইনটিস্ট হিসেবে কর্মরত। এর পাশাপাশি সে রসায়ন শাস্ত্রে ডক্টরেট করছেন। চট্টগ্রামের যিমা কবিরের পরিবারের দীর্ঘদিন ধরে নেদারল্যান্ডে বসবাস। সেখানেই জন্ম জিমার। জিমা নেদারল্যান্ডে বায়োকেমিস্ট্রিতে গ্র্যাজুয়েশন সম্পন্ন করেছেন। নেদারল্যান্ডেই করোনাকালীন সময়ে যিমার পরিচয় হয় নেদারল্যান্ডের এই তরুণের সাথে। এর পর দু’জনের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। দেড় বছর পর দুই পরিবারের সম্মতিতে নেদারল্যান্ডে তারা বিয়ে করেন।

শনিবার রাতে চট্টগ্রাম মহানগরীর আগ্রাবাদস্থ কপার চিমনি রেস্টুরেন্টের ব্যাংকুইট হলে জিমা কবীর এবং ডেনিসের বর্ণিল রিসিপশন অনুষ্ঠিত হয়। সেখানি বাংলাদেশের ঐতিহ্যবাহী কাচ্চি বিরিয়ানিতে ডিনার করানো হয় অতিথিদের।

জিমার বাবা জহিরুল কবির চট্টগ্রামের ডবলমুরিং থানার আগ্রাবাদ পাঠানটুলি এলাকার বাসিন্দা। চট্টগ্রামে নিজের সমাজ ও আত্মীয় স্বজনদের মেয়ের জামাই দেখাতে এবং বাংলাদেশের সংস্কৃতির সাথে মেয়ে জামাইকে পরিচিত করাতে এই রিসিপশনের আয়োজন করা হয়। রিসিপশনে অংশ নিতে গত ৩০ জুন বাংলাদেশে আসেন ডেনিস। জিমা কবিরের মা শাহনাজ বেগম বলেন,আমার মেয়ের সাথে ডেনিসের পরিচয় এবং সম্পর্কের গভীরতা অনুধাবন করেই দুই পরিবারের সম্মতিতে তাদের বিয়ে।

এই বিয়ে রিসিপশন এবং বাংলাদেশি সংস্কৃতিতে আপ্লুত ন্যাদারল্যান্ডের ডেনিস বললেন ‘জিমাকে বিয়ে করতে পেরে আমি অত্যন্ত আনন্দিত। জিমা আমার সুন্দর বউ।’ ডেনিস বললেন, বাংলাদেশের মানুষের আতিথেয়তায় তিনি মুগ্ধ। তিনি জিমাকে অনেক ভালোবাসেন। বাংলাদেশের আনুষ্ঠানিকতা শেষ করে দু’জন শিগগিরই নেদারল্যান্ডে ফিরে যাবেন।

আগ্রাবাদ দি কপার চিমনি রেস্টুরেন্টের জেনারেল ম্যানেজার কামাল পারভেজ জানান, জিমা-ডেনিসের রিসেপশন উপলক্ষ্যে কপার চিমনি নান্দনিকভাবে সাজানো হয়। কনের পরিবারের পছন্দ অনুযায়ী বাংলাদেশের ঐতিহ্যবাহী খাবার খাসির কাচ্চি বিরিয়ানি, চিকেন রোস্ট, বোরহানিসহ নানা বৈচিত্রময় দেশীয় খাবারে অতিথিদের জন্য ডিনারের ব্যবস্থা করা হয়।

     আরো পড়ুন....

পুরাতন খবরঃ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১  

ফেসবুকে আমরাঃ