মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক বলেছেন, সংসদ ভবনের আশপাশ থেকে জিয়ার কবরসহ সকল স্থাপনা সরিয়ে নেওয়ার জন্য স্পিকার বরাবর আবেদন করা হয়েছে। তিনি বলেন, দ্রুত সময়ের মধ্যে সংসদ ভবনকে মূল নকশায় ফিরিয়ে আনার কাজ চলছে। বৃহস্পতিবার (২৬ আগস্ট) গাজীপুর সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে জাতীয় শোক দিবসের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন তিনি।

মন্ত্রী বলেন, চন্দ্রিমা উদ্যানের মাজারে জিয়াউর রহমানের লাশ নেই। তাকে ব্রাশফায়ার করে হত্যার পর মৃতদেহ পুড়িয়ে ফেলা হয়েছে। জিয়াউর রহমানের লাশ থাকলে ডিএনএ টেস্ট করে প্রমাণ করার আহ্বানও জানান তিনি।

এর আগে আজ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, চন্দ্রিমা উদ্যানে জিয়াউর রহমানের কবর নেই, তারপরও বিএনপি সেখানে বিশৃঙ্খলা করে। ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের জাতীয় শোক দিবসের আলোচনা অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ কথা বলেন। তিনি বলেন, জিয়াউর রহমান বাংলাদেশের স্বাধীনতা ও অস্তিত্বে কখনো বিশ্বাস করতেন না। বঙ্গবন্ধু স্বাধীনতার ঘোষণা দেয়ার পরও জিয়াউর রহমান পাকিস্তান বাহিনীর সদস্য হিসেবে কাজ করেছে। অনুষ্ঠানে তিনি আরও বলেন, খুনি মোশতাকের মূল শক্তি ছিল জিয়াউর রহমান। জিয়াউর রহমান কোথায়, কোন গ্রাউন্ডে যুদ্ধ করেছে তার কিন্তু কোনো ইতিহাস নাই।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: