দেশের বন্যা পরিস্থিতির অবনতি ঘটায় বিপদগ্রস্থ মানুষের পাশে দাড়াতে এগিয়ে আসা ব্যক্তিদের মাঝে অন্যতম সংগীতশিল্পী তাশরীফ খান। সিলেটে বন্যা পরিস্থিতি অবনতি হওয়ায় সেখানকার মানুষের সাহায্যর জন্য প্রায় ১৬ লাখ টাকার তহবিল গঠন করে আলোচনায় আসেন তাশরীফ ও তার দল। ’

যেখানে বিভিন্ন ব্যক্তি, প্রতিষ্ঠানও সহযোগীতা পাঠিয়েছেন। এরপর ফেসবুক লাইভে আরও মানুষের কাছে সহায়তা কামনা করেন তাশরীফ। তার সেই ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ার পর আরও দেড় কোটি টাকা অনুদান সংগ্রহ করেন তিনি। তার এমন উদ্যেগ বেশ প্রশংসা কুড়ায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।

এদিকে ত্রাণ দেওয়ার সর্বশেষ আপডেট সকলের সঙ্গে ফেসবুকে ভিডিও বার্তায় শেয়ার করছেন এই সংগীতশিল্পী। সেখানেই তুলে ধরছেন নিজের সঙ্গে ঘটে চলা প্রতিমুহুর্তের সকল অভিজ্ঞতা। তারই ধারাবাহিকতায় বৃহস্পতিবার (২৩ জুন) ফেসবুক লাইভে সংগীতশিল্পী জানালেন সিলেটের একটি জায়গায় ত্রাণ বিতরণে গিয়ে পুলিশের দুর্ব্যবহারের শিকার হয়েছেন। খেয়েছেন ধমকও।

ভিডিওতে তাশরীফ বলেন, ‘আমি একটা ইন্সিডেন্টের কথা শেয়ার করি। এটা আমার মনের ভেতর থেকে যাইতেছে না। মারাত্মক রকম একটা ব্যাড বাজ খেয়েছি আমি। সারাদিন কাজ করার পর গতকাল আড়াইটার দিকে সিলেটের একটি জায়গায় আমরা লাল চা খাচ্ছিলাম। এরপর পুলিশের একটা গাড়ি আসলো। পুলিশের একজন অফিসার মোটামুটি ধমকের স্বরেই বললেন, আপনারা কোথাকার? এখানে কী করতেছেন? আমি বললাম, স্যার আমরা এখানে ত্রাণ দিতে এসেছি ঢাকা থেকে। আপনাদের সিলেটের জন্যই কাজ করতেছি। আমরা চা খেয়ে এখান থেকে চলে যাবো। এরপর আমাকে সরাসরি ধমক দেওয়া হয়েছে। আমাকে বলা হয়েছে চলে যান এখান থেকে।’

এই গায়ক আরও যোগ করেন, “এরপর আমি তাকে বলেছি, স্যার দয়া করে কোনো নাগরিককে এভাবে ধমক দেবেন না। সিলেট বিপদে আছে। আমরা সিলেটের জন্য কাজ করতে আসছি। আমরা এখানে চুরি-চামারি করতে আসিনি। আমি উনাকে রিকুয়েস্ট করে বলেছি স্যার চায়ের কাপটা শেষ করে আমি চলে যাবো। তারপর আমাকে কী বলা হয়েছে শোনেন-তখন আমাকে আঙুল তুলে বলা হয়েছে, ‘এখন তো ভালো করে বলেছি এরপর খারাপ করে বলব। এক্ষুন্নি চলে যান এখান থেকে।’ এই কথাটা শোনার পর আমি একটা শব্দও করি নাই।”

লাইভে সেই পুলিশ সদস্যের উদ্দেশে তাশরীফ বলেন, ‘স্যার দয়া করে এই সময়টাতে আপনারা একটু পাশে দাঁড়াইয়েন। আমাদেরকে পারলে একটু সাহস দিয়েন। আমাদের সাহসটা খুব দরকার। আপনারা সাথে থাকলে আমাদের মন, আমাদের কাঁধটা অনেক ভারী হয়ে যায়।’

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: