নিউমার্কেট ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি ডা. দেওয়ান আমিনুল ইসলাম শাহীন বলছেন, নিউমার্কেটে ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে সংঘর্ষে ১০ হাজার ব্যবসায়ীর প্রায় ২০০ কোটি টাকা লোকসান হয়েছে। তিনি বলেন, আজও যদি দোকান না খোলা হয় তাহলে ফুটপাতসহ অন্যান্য ব্যবসায়ীদের এ ক্ষতি আরও বাড়বে। আজ বুধবার (২০ এপ্রিল) দুপুরে গণমাধ্যমকে তিনি এ তথ্য জানান। এর আগে দুপুর ২টায় নিউমার্কেট ব্যবসায়ী সমিতির অফিসে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

শাহীন বলেন, এ ঘটনার পর থেকে ঢাকা কলেজের কোনো প্রতিনিধি আমাদের কাছে আসেননি। যারা এসেছিলেন তারা ঢাকা কলেজের কি না জানি না। আমাদের প্রতিনিধিও ঢাকা কলেজ কর্তৃপক্ষের সঙ্গে দেখা করতে পারেননি। তবে আমরা দোকান খুলতে চাই। আমরা আলোচনা করতে চাই, উভয়পক্ষের সঙ্গে আলোচনায় পুরোপুরি প্রস্তুত।

উল্লেখ্য, সোমবার রাত ১২টার দিকে রাজধানীর নিউ মার্কেট এলাকায় ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থী ও ব্যবসায়ীদের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হয়। প্রায় আড়াই ঘণ্টা ধরে চলা এ সংঘর্ষে কয়েকজন শিক্ষার্থী ও ব্যবসায়ী আহত হন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ টিয়ার শেল ও রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে। এসময় আহত হন বেশ কয়েকজন পুলিশ সদস্যও।

মঙ্গলবার সকালে আবারও সংঘর্ষে জড়ান শিক্ষার্থী ও ব্যবসায়ীরা। মুখোমুখি অবস্থান নিয়ে তারা ইট-পাটকেল ছুড়তে থাকেন। ছাত্রদের অনেকে হেলমেট পরে এবং লাঠি হাতে নিয়ে সংঘর্ষে জড়ান। ব্যবসায়ী-কর্মচারীরাও লাঠিসোটা ও লোহার রড নিয়ে ছাত্রদের ওপর হামলা চালানো শুরু করেন। বেলা সাড়ে ১১টার দিকে এ সংঘর্ষ ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়ে গোটা নিউ মার্কেট ও সায়েন্সল্যাব এলাকায়। থেমে থেমে সারাদিন চলে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ। এতে শতাধিক শিক্ষার্থী এবং প্রায় অর্ধশত ব্যবসায়ী-কর্মচারী আহত হন। দুই শিক্ষার্থীসহ বেশ কয়েকজন গুরুতর আহত হন।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: