নির্বাচনে হেরে গোরস্থানে দান করা জমি ফিরিয়ে নিলেন প্রার্থী!

নির্বাচনে হেরে গোরস্থানে দান করা জমি ফিরিয়ে নেওয়া অভিযোগ উঠেছে এক মেম্বার প্রার্থীর বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার দাইপুকুরিয় ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ডে। গত নভেম্বরে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ৬ নং ওয়ার্ডের মেম্বার প্রার্থী মো.তসলিম উদ্দিন এলাকার গোরস্থানের জন্য ২ কাঠা জমি দেওয়ার ঘোষণা দেন। তার ঘোষণার পরে করস্থান কমিটি ওই জায়গায় মাটি ফেলে ভরাট করেছে। কিন্তু ভোটে হেরে এখন জমি ফিরিয়ে নিয়েছেন তিনি। সেই জমিতে এখন তিনি টাক্টর দিয়ে হালচাষ করছেন। এতে স্থানীয়দের মধ্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে।

এ বিষয়ে দারিগাছা কেন্দ্রীয় গোরস্থান কমিটির সাধারণ সম্পাদক হারুনার রশীদ জানান, স্থানীয় মানুষদের জন্য গোরস্থানটি ২০০৯ সালে প্রতিষ্ঠা করি। এর পর থেকে আশেপাশের জমি কিনে গোরস্থানের জমি বড় করতেছি। গোরস্থান বড় হলেও প্রবেশের কোনো রাস্তা ছিলো না। তাই তসলিম উদ্দিন নির্বাচনের সময় গোরস্থানে প্রবেশের লক্ষ্যে দুই কাঠা জমি দেওয়ার ঘোষণা দেন। ফলে পার্শবর্তী এলাকা থেকে মাটি এনে ওই জমিতে গোরস্থানে প্রবেশের রাস্তাটি বানানো হয়। কিন্তু নির্বাচনে পরাজিত হয়ে এখন তিনি জমি দিতে চাচ্ছেন না। এতে বাধ্য হয়ে তার কাছে জমিটি কেনার জন্য বললে তিনি ৪ লাখ টাকা দাম চাইছেন। কিন্তু এর আশপাশের জমি ৩০-৪০ হাজার টাকা কাঠা দরে বিক্রি হচ্ছে।

এদিকে এলাকাবাসী জানান, তিনি গোরস্থানে জমি দান করায় আমরা তাকে ভোট দিয়েছি।কিন্তু নির্বাচনের কয়েকদিন পরেই শুনছি তিনি সেই জমি আর দান করবেন না। নির্বাচনে পরাজিত হয়ে এমনটা করা তার ঠিক হয়নি। এ বিষয়ে পরাজিত মেম্বার প্রর্থী তসলিম উদ্দিন বলেন, ‘আমি কোনো গোরস্থানে জমি দানের কথা বলিনি। কিন্তু স্থানীয় লোকজন আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা প্রচারণা চালাচ্ছে।’

উল্লেখ্য, গত ২৮ নভেম্বর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে উপজেলার ১৩ ইউনিয়নের সঙ্গে দাইপুকুরিয়া ইউনিয়নের ভোটগ্রহণ সম্পন্ন হয়। এতে ৬ নং ওয়ার্ডে ফুটবল প্রতীক নিয়ে মো. তসলিম উদ্দিন ৫১০ ভোট পান। আর মোরগ মার্কা নিয়ে আব্দুল আজিজ ১,৫৮৭ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন।

     আরো পড়ুন....

পুরাতন খবরঃ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১  

ফেসবুকে আমরাঃ