পদ্মা সেতুর উদ্বোধনে দশ লাখ লোকের সমাগম না ঘটিয়ে সেই খরচের টাকা দিয়ে গরিব মানুষদের খাওয়ানোর পরামর্শ দিয়েছে ণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী। মঙ্গলবার (৭ জুন) জাতীয় প্রেস ক্লাবের তফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া হলে সোনার বাংলা পার্টি আয়োজিত এক গোলটেবিল বৈঠকে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী অভিনন্দন জানিয়ে ডা. জাফরুল্লাহ বলেন, আপনি পদ্মা ব্রিজের নির্মাণকাজ শেষ করেছেন। মেগা প্রজেক্ট করেছেন। মানুষের খাবার নাই, কিন্তু একটা ভালো কাজই করলেন। যাতায়াত সুবিধা করে দিলেন। তবে সেতুর উদ্বোধনে ১০ লাখ লোকের সমাবেশ বন্ধ করুন। এজন্য যে খরচ হবে সেটা আগামী ঈদে ১০ লাখ দরিদ্র পরিবারের খাবারের জন্য দিন। তাহলে সবাই আপনার জন্য দোয়া করবে। আপনি পদ্মা সেতু করেছেন, তা তো আমরা দেখছিই।

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে বিএম কনটেইনার ডিপোতে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, সীতাকুণ্ডে যা হয়েছে এটা নতুন কিছু নয়। ২০১০ সালে আপনারা রাজধানীর নিমতলি মহল্লার আগুনের কথা নিশ্চয় ভুলে জাননি। সেখানেও প্রায় ১৩৪ জন লোক মারা গিয়েছিলো। ওটাই শেষ ঘটনা নয়। এরপর প্রায় প্রতি বছরই হয়েছে। ২০২১ সালে নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে হাসেম ফুড অ্যান্ড বেভারেজ কারখানায় আগুনও এরই ধারাবাহিকতা।

সোনার বাংলা পার্টির সভাপতি শেখ আব্দুল নূরের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ হারুন অর রশিদের সঞ্চালনায় আরও বক্তব্য রাখেন- নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক কমরেড সাইফুল হক, গণফোরামের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরী, গণঅধিকার পরিষদের সদস্য সচিব নূরুল হক নূর, বাংলাদেশ ন্যাপ মহাসচিব এম গোলাম মোস্তফা ভুইয়াসহ প্রমুখ।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: