মা-বোনের সঙ্গে ঢাকা যাচ্ছিলেন এক প্রসূতি। কিন্তু গন্তব্যে বাসে যাওয়ার জন্য পদ্মা সেতুর জাজিরা টোল প্লাজা সংলগ্ন দক্ষিণ থানার সামনের সড়কে তাদের নামিয়ে দেন এক ভ্যানচালক। বাসে ওঠার আগেই টোল প্লাজা সংলগ্ন সড়কে ছেলের জন্ম দিয়েছেন এক নারী। ওই নারীর নাম হাসি আক্তার (২১)।

সোমবার (৪ জুলাই) দুপুর ১২টার দিকে ওই নবজাতকের জন্ম হয়। বর্তমানে মা ও শিশু বিশরশ্মি গ্রামের নিজ বাড়িতে আছেন।

ওই নারী মাদারীপুর জেলার শিবচর উপজেলার বিশরশ্মি গ্রামের আলী হাসানের স্ত্রী। ওই দম্পতি বিজিবির সদস্য।

পরিবার সূত্রে জানা গেছে, হাসি আক্তার-স্বামী আলী হাসান দম্পতি টেকনাফ বিজিবিতে চাকরি করেন। হাসি মাতৃত্বকালীন ছুটিতে গত মাসে মাদারীপুরের বিশরশ্মি গ্রামের বাড়িতে আসেন। সোমবার হাসির প্রসব বেদনা হলে স্থানীয় একটি বেসরকারি হাসপাতালে নেওয়া হয়। কর্তব্যরত চিকিৎসক হাসিকে ঢাকাতে প্রেরণ করেন। পরে দুপুরে ঢাকা পিলখানা বিজিবি হাসপাতালে নেওয়ার পথে পদ্মা সেতুর জাজিরা টোল প্লাজা সংলগ্ন দক্ষিণ থানার সামনের সড়কে ফুটফুটে ছেলের জন্ম দেন।

পরে পদ্মা দক্ষিণ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান, তদন্ত ওসি মো. সুজন হকসহ পুলিশ সদস্যরা হাসি ও তার নবজাতককে বাড়িতে পৌঁছে দেন।

পদ্মা দক্ষিণ থানার তদন্ত ওসি মো. সুজন হক বলেন, সোমবার দুপুরে মাদারীপুরের হাসি আক্তার নামের এক প্রসূতি মহিলা ছেলেসন্তানের জন্ম দিয়েছে। পরে প্রসূতি ও নবজাতককে আমরা গাড়িতে করে তার নিজ বাড়িতে পৌঁছে দিই। মা ও সন্তান উভয়ই সুস্থ আছে।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: