পরিবারের সদস্য ১২, মাত্র ১ ভোট পেয়ে কেঁদে ফেললেন প্রার্থী

পঞ্চায়েত প্রধান পদের জন্য ঘটা করে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছিলেন। প্রচারণায়ও কোনো কমতি রাখেননি। কিন্তু আসল লড়াইয়ে যে এভাবে লজ্জা পেতে হবে, তা কল্পনাও করতে পারেননি। দিনশেষে মাত্র এক ভোট পেয়ে হাউমাউ করে কেঁদে ফেললেন প্রার্থী। গ্রামের লোকজন তাকে ভোট দেয়নি হয়তো মানা যায়, কিন্তু নিজের পরিবারের ১২ সদস্যের ভোটও তিনি পাননি, আর এটিই তাকে সবচেয়ে বেশি আঘাত দিয়েছে। সম্প্রতি ভারতের গুজরাটে ঘটেছে এ ঘটনা। খবর- এনডিটিভি, আনন্দবাজার পত্রিকা।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়, গুজরাটের বাপি জেলার চারওয়ালা গ্রামের বাসিন্দা সন্তোষ হালপাতি। পঞ্চায়েত প্রধান পদের জন্য মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছিলেন তিনি। আশা করেছিলেন বিপুল ভোটে জয় পাবেন। কিন্তু সেই আশায় গুড়েবালি। প্রতিবেশী, বন্ধু-বান্ধব, এমনকি নিজের পরিবারের লোকেরাও ভোট দেয়নি তাকে।

গত মঙ্গলবার গুজরাটের রাজ্য নির্বাচন কমিশন ৮ হাজার ৬৮৬টি গ্রাম পঞ্চায়েতের মধ্যে ৬ হাজার ৪৮১টির ফল ঘোষণা করে। ফলাফল সামনে আসলে দেখা যায়, সন্তোষ মাত্র একটি ভোট পেয়েছেন এবং সেটিও নিজেই দিয়েছেন। ভোটের ফল জানার পর গণনাকেন্দ্রের সামনেই কান্নায় ভেঙে পড়েন তিনি।

ভারতের নির্বাচনে এক ভোট পাওয়ার ঘটনা অবশ্য এটি প্রথম নয়। এর আগে তামিলনাড়ুর কোয়ম্বত্তূরে এক স্বতন্ত্র প্রার্থী স্থানীয় নির্বাচনে এক ভোট পেয়েছিলেন। তারও পরিবারের সদস্যরা তাকে ভোট দেননি। যদিও, সেই প্রার্থী দাবি করেছিলেন, তার পরিবারের সদস্যরা অন্য ওয়ার্ডের ভোটার। তাই সেখানেই ভোট দিয়েছেন।

     আরো পড়ুন....

পুরাতন খবরঃ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১  

ফেসবুকে আমরাঃ