ফেরি উদ্ধারে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছে হামজা ও রুস্তম

ফেরি আমানত শাহ উদ্ধারে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছে উদ্ধারকারী জাহাজ হামজা ও রুস্তম। ডুবে যাওয়া জাহাজটি কিভাবে উদ্ধার করা হবে বা কত সময় লাগবে তাও সঠিকভাবে বলতে পারছেনা কর্তৃপক্ষ। উদ্ধারের বিষয়ে দুপুরে সিদ্ধান্ত আসতে পারে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন সংস্থা (বিআইডব্লিউটিসি)। আজ রোববার দুপুরে সংস্থাটির আরিচা আঞ্চলিক কার্যালয়ের উপমহাব্যবস্থাপক (বাণিজ্য) জিল্লুর রহমান এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, উদ্ধার কাজে নিয়োজিত এবং সংশ্লিষ্ট সব কর্মকর্তা ঢাকায় রয়েছেন। দুপুরে বিআইডব্লিউটিসির প্রধান কার্যালয়ে সভা হওয়ার কথা রয়েছে। সেখানে ফেরি উদ্ধারে করণীয় বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হতে পারে। বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষের পরিচালক (উদ্ধার) ফজলুর রহমান গতকাল রাত সাড়ে ৮টার দিকে জানান, নদী থেকে সব গাড়িই উদ্ধার করা হয়েছে। উদ্ধারকারী জাহাজ হামজা ও রুস্তম পাটুরিয়া ঘাটের ৫ নম্বর পন্টুন এলাকায় নোঙর করে রাখা হয়েছে।

এদিকে গত ৫ দিন ধরে পাটুরিয়া ৫নং ফেরিঘাট এবং ৪ নং ঘাটের পকেট খারাপ থাকায় সেটিও বন্ধ রয়েছে। ঘাট বন্ধ থাকায় ৩ কিলোমিটার যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। এতে করে ভোগান্তিতে পড়েছে পণ্যবাহী ট্রাক কাভার্ড ভ্যানের চালকেরা। ফলে ট্রাকে থাকা পচনশীল পণ্যের নষ্ট হওয়ার আশঙ্কা করছেন তারা।

এর আগে গত বুধবার সকাল পৌনে ১০টার দিকে ১৭টি কাভার্ড ভ্যান-ট্রাক এবং কয়েকটি মোটরসাইকেল নিয়ে শাহ আমানত নামের ফেরিটি পাটুরিয়ায় এসে কাত হয়ে ডুবে যায়।

     আরো পড়ুন....

পুরাতন খবরঃ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১  

ফেসবুকে আমরাঃ