ফের ইডেন কলেজে ছাত্রীদের মধ্যে সংঘর্ষ, আহত ১০

ইডেন কলেজ ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে অন্তত দশজন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। সংবাদ সম্মেলনে কথা বলা নিয়ে দু’গ্রুপের সংঘর্ষ হয়। রবিবার(২৫ সেপ্টেম্বর) বিকেলে ইডেন কলেজের অডিটোরিয়ামের সামনে এ ঘটনা ঘটে।

ইডেন কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদককে ক্যাম্পাস থেকে বের না করা পর্যন্ত অবস্থান চালিয়ে যাবে বলে জানিয়েছে একটি পক্ষ, আরেকটি পক্ষ শনিবারের (২৪ সেপ্টেম্বর) ঘটনার ভুক্তভোগী পক্ষের অংশকে ক্যাম্পাস থেকে বহিষ্কারে দাবি জানিয়ে অবস্থান করছেন।

এর আগে ইডেন মহিলা কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি তামান্না জেসমিন রিভা ও সাধারণ সম্পাদক রাজিয়া সুলতানাকে অবাঞ্চিত ঘোষণা করেছে ছাত্রলীগের একাংশ। রবিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) দুপুর ১টায় ইডেন কলেজ ক্যাম্পাসে সংবাদ সম্মেলনে এ ঘোষণা দেন ইডেন কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি সুস্মিতা বাড়ৈ৷

তিনি বলেন, আপনাদের কাছে খবর আছে- ছাত্রলীগের যে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে, সেখানে বেনজীর হোসেন নীশি আছেন। রোকেয়া হলের এজিএসকে মারধরের ঘটনায় পিবিআইয়ের তদন্তে দোষী সাবস্ত হওয়ায় নীশির বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। একটা মামলার আসামি কীভাবে তদন্ত কমিটিতে থাকতে পারেন! আমরা এ তদন্ত কমিটিকে প্রত্যাখ্যান করলাম।

সুস্মিতা বাড়ৈ বলেন, এমনিতেই তারা এসে রুমের বিষয়ে কথা বলেন। মারবে, ধরবে, থাপড়াবে এসব করে। আজ ছাত্রলীগের সেক্রেটারি যদি আমার ফোন ধরতেন, তাহলে আমার অভিযোগ জানাতে পারতাম। আমরা ছাত্রলীগের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকের সঙ্গে দেখা করতে গেলে আমাদের বাসায় ঢুকতে দেওয়া হয় না।

আমরা ইডেন কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি তামান্না জেসমিন রিভা ও সাধারণ সম্পাদক রাজিয়া সুলতানাকে আবাঞ্ছিত ঘোষণা করছি। সেই সঙ্গে ছাত্রলীগের এ তদন্ত কমিটিকে আমরা মানি না। রিভা ও রাজিয়াকে বহিষ্কার করে তদন্ত করতে হবে। এসময় ইডেন কলেজ ছাত্রলীগের বর্তমান কমিটি ২০-২৫ জন ছাত্রলীগ নেত্রী উপস্থিত ছিলেন৷

     আরো পড়ুন....

পুরাতন খবরঃ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০  

ফেসবুকে আমরাঃ