জামায়াত নেতা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদী ও মিজানুর রহমান আজহারীর পক্ষে ফেসবুকে পোস্ট শেয়ার করায় ফেনীর ফুলগাজী উপজেলা ছাত্রলীগের নবগঠিত কমিটির সভাপতি রাকিবুল হাসান পিয়াসকে সংগঠন থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। মঙ্গলবার (২৮ জুন) ফেনী জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি তোফায়েল আহাম্মেদ তপু ও সাধারণ সম্পাদক মো. নুর করিম জাবেদ এর স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। এর আগে উপজেলার ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণার ১৪ ঘণ্টার মাথায় সেটি স্থগিত করা হয়েছিল। এবার নতুন করে উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতির পদে পিয়াসের বদলে রেজাউল কবির মজুমদারকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

এ বিষয়ে জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক নুর করিম জাবেদ বলেন, গত ২৬ মে উপজেলা ছাত্রলীগের সম্মেলনে যাচাই-বাছাই শেষে জমা পড়া বায়োডাটা বিশ্লেষণ করে উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের নাম ঘোষণা করা হয়। কমিটির সভাপতি পিয়াসের বিরুদ্ধে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে জামায়াত-শিবিরপন্থি বিভিন্ন পোস্ট শেয়ারের অভিযোগ ওঠায় সমালোচনার সৃষ্টি হয়। আমরা বিষয়টি জানার সঙ্গে সঙ্গে ২৭ মে কমিটি স্থগিত করে তদন্ত কমিটি গঠন করি। তদন্তে তার বিরুদ্ধে উত্থাপিত অভিযোগের সত্যতা পাওয়ায় আমরা পিয়াসকে সংগঠন থেকে অব্যাহতি দিয়েছি।

অভিযুক্ত ছাত্রলীগ নেতা রাকিবুল হাসান পিয়াস বলেন, আমার চাচা একজন জনপ্রতিনিধি ও বীর মুক্তিযোদ্ধা ছিলেন। আমাদের পুরো পরিবার আওয়ামী রাজনীতির সঙ্গে সরাসরি সম্পৃক্ত। ফুলগাজী উপজেলা ছাত্রলীগের নতুন কমিটিতে সভাপতি পদ দেওয়ায় একটি চক্র আমার বিরুদ্ধে বিভিন্ন মিথ্যা, বানোয়াট ও ভিত্তিহীন তথ্য সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে দিয়ে আমাকে হেয়প্রতিপন্ন করার অপচেষ্টা চালাচ্ছে। তারা আমার নামে একটি ভুয়া আইডি তৈরি করে ওই আইডিতে জামায়াত নেতাদের বিভিন্ন পোস্ট শেয়ার করে আমার রাজনৈতিক ক্যারিয়ার ধ্বংস করতে চাইছে।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: