ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলেছেন, ‘মুক্তিযুদ্ধ শুরু হলে বাংলাদেশের জনগণের মতো ভারতের জনগণের মধ্যেও স্বাধীনতার আকুলতা ছিল। আমাদের যারা শত্রু তারাও বাংলাদেশের শত্রু। বাংলাদেশের স্বাধীনতার সমর্থনে আমি ও আমার বন্ধুরা সত্যাগ্রহ (আন্দোলন) করেছিলাম’। শুক্রবার (২৬ মার্চ) বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে সম্মানিত অতিথির বক্তব্যে এ সব কথা বলেন তিনি।

নরেন্দ্র মোদি বলেন, ‘মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণকারী অনেকেই আমার সঙ্গে এখানে আছেন। আমার জীবনের প্রথম আন্দোলন মুক্তিযুদ্ধ। তখন আমার বয়স ছিল ২০-২২ বছর।’

তিনি আরও বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুকে গান্ধী শান্তি পুরস্কার দিতে পারা ভারতের জন্য গর্বের ব্যাপার। ভারত-বাংলাদেশ সম্পর্কের ৫০ বছর পূর্তিতে উপস্থিত থাকা এবং এমন একটি পুরস্কার তুলে দিতে পারা আমার জীবনের সেরা মুহূর্তগুলোর একটি।’

ভারতের প্রধানমন্ত্রী বলেন, জন্মলগ্ন থেকেই বাংলাদেশ-ভারত বন্ধু। বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ক এই ৫০ বছরে আরো দৃঢ় হয়েছে। এই দু’দেশের সম্পর্ক এমন- যা কখনো নষ্ট হবে না। এ অঞ্চলের উন্নয়নের জন্য দুই দেশকে একসাথে কাজ করে যেতে হবে বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: