নরসিংদীতে বিয়ে বাড়িতে খাবার কম দেয়াকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের মাঝে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে আহত হয়েছেন কমপক্ষে ১০ জন । শুক্রবার (২০ মে) রায়পুরার মুসাপুর ইউনিয়নের পূর্ব হরিপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এদিকে উভয় পক্ষের মধ্যে এই সংঘর্ষের ফলে বিয়ে না করেই ফিরে যান বর। তাই রাগে ক্ষোভে আত্মহত্যার চেষ্টা চালায় নববধূ।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, রায়পুরার মুসাপুর ইউনিয়নের পূর্ব হরিপুর গ্রামের রফিকুল ইসলামের মেয়ের সঙ্গে একই উপজেলার মাহমুদপুর গ্রামের আতাউর মিয়ার ছেলের দীর্ঘদিনের প্রেমের সম্পর্ক। দুই পরিবারের সম্মতিতে শুক্রবার তাদের বিয়ের দিন ধার্য করা হয়। দুপুরে যথারীতি বরযাত্রী এলে খাওয়া-দাওয়া শুরু হয়। এক পর্যায়ে খাবার কম পড়ায় বরের বাবা রফিকুল ইসলাম ক্ষিপ্ত হন। তিনি খাবার ভর্তি প্লেট ঢিল মেরে ফেলে দেন। এ নিয়ে দুপক্ষের মধ্যে বাকবিতণ্ডা শুরু হয়। পরে তা হাতাহাতি ও মারামারিতে গড়ায়।

এ ঘটনায় স্থানীয় সাংবাদিকসহ দুপক্ষের অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন। খবর পেয়ে রায়পুরা থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। রায়পুরা থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) রাকিবুল ইসলাম বলেন, বরপক্ষের খাবার কম পড়ায় দুই পক্ষের মধ্যে হাতাহাতি হয়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ ঘটনায় কোনো পক্ষই থানায় অভিযোগ দায়ের করেনি।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: