রাজধানীর কুর্মিটোলায় র‍্যাব সদর দপ্তরে ডিউটিরত অবস্থায় মাথায় গুলি লেগে শুভ মল্ল (২৬) নামে এক র‌্যাব সদস্যের মৃত্যু হয়েছে। সোমবার দুপুর আড়াইটার দিকে বিশেষ বাহিনীটির সদর দপ্তরে তার মৃত্যুর এ ঘটনা ঘটে। এটি দুর্ঘটনা, না কি আত্মহত্যা, তা নিশ্চিত করতে পারেনি র‌্যাবের কর্মকর্তারা। শুভ মল্লর গ্রামের বাড়ি মীরসরাই উপজেলার করেরহাট ইউনিয়নের জয়পুর পূর্বজোয়ার গ্রামে। তার বড় ভাই বিদেশ থাকেন। তিনি আসলে শুভকে বিয়ে দেওয়ার কথা ছিল। এর মধ্যে ঘটে গেল অঘটন।

র‌্যাবের মুখপাত্র কমান্ডার খন্দকার আল মঈন গণমাধ্যমকে বলেন, শুভর নামে বরাদ্দ হওয়া রাইফেলের গুলিতে তার মৃত্যু হয়। এটি দুর্ঘটনা বা আত্মহত্যা জনিত, তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। বিকাল ৫টার দিকে গুরুতর আহত অবস্থায় শুভ মল্লকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নেওয়া হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

মীরসরাই উপজেলার তার গ্রামের নিকটতম প্রতিবেশী মাঈন উদ্দিন জানান, শুভ মল্ল ছোট বেলাতেই মা কে হারায়, বাবা কালু মল্ল নিজ হাতে বড় করেছে তিন ভাইকে। তিন ভাইয়ের মধ্যে শুভ সবার ছোট বলে সবাই আদর ও করতো। বড় ভাই বিদেশে থাকেন। তিনি দেশে আসলে ছোট ভাইকে বিয়ে দেওয়ার কথা ছিল। কিন্তু শুভর পছন্দের মেয়েকে বাবা ও ভাইয়েরা মেনে নিচ্ছিল না বলে জানান তিনি। জানা গেছে, শুভ পুলিশ কনস্টেবল ছিলেন। সেখান থেকে তিনি র‌্যাবে যোগদান করেন।

শুভের গ্রামের এলাকার করেরহাটের ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জামাল উদ্দিন চৌধুরী জানান, শুভ মল্লের বাবা কৃষক কালু মল্ল পুত্রের আত্মহত্যার ঘটনা শুনে মাটিতে গড়াগড়ি করে কাঁদছে আর জ্ঞান হারিয়ে ফেলছে। স্বজনদের আহাজারিতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: