গত ২৬ ডিসেম্বর চতুর্থ ধাপে দেশের ৮৩৮ ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ নির্বাচনে মাদারীপুর জেলার রাজৈর উপজেলার ইশিবপুর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী ছিলেন সালাহ উদ্দিন আহমেদ। যিনি কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও ডাকসুর সাবেক জিএস গোলাম রাব্বানীর মামা। নির্বাচনে পরাজয় বরণ করেছেন তিনি।

জানা গেছে, ইশিবপুর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী ছিলেন মোট ১৪ জন। মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলায় এ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ দলীয়ভাবে কোনো প্রার্থীকে মনোনয়ন দেয়নি। সেজন্য প্রার্থীর সংখ্যা বেশি ছিল।

এদিন সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ভোট শেষে দেখা গেল গিটার প্রতীক নিয়ে ২৫০৫ ভোট পেয়ে সালাহউদ্দীন আহমেদ পরাজিত হয়েছেন। অপরদিকে বিজয়ী প্রার্থী মোশারফ মোল্লা মোটরসাইকেল প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ৩২৬২ ভোট। নির্বাচন অফিস সূত্র এ তথ্য জানায়।

এদিকে নির্বাচনের আগে বেশ কয়েক দিন ধরেই মামা সালাহ উদ্দিন আহমেদের পক্ষে নির্বাচনী প্রচারণায় অংশ নিয়েছিলেন গোলাম রাব্বানী। রোববার দুপুরে এ নির্বাচনকে কেন্দ্র করেই প্রতিপক্ষের ধারালো অস্ত্রের কোপে আহত হন তিনি। রোববার ভোটগ্রহণ চলাকালীন ৭নং ওয়ার্ডের গাংকান্দি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে প্রতিপক্ষ মোশারফ মোল্লার লোকজন ভোট কেটে নেওয়ার চেষ্টা করছে— এ খবর শুনে গোলাম রাব্বানী সেখানে গেলে মোশারফ মোল্লার ছেলে তার ওপর চড়াও হয়। একপর্যায়ে গোলাম রাব্বানীকে ছুরি দিয়ে কোপ দেয়। এ সময় রাব্বানী ফেরাতে গেলে তার ডান হাতের দুইটি আঙুল কেটে যায়। পরে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় উভয়পক্ষের আরও ৫ জন আহত হন।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: