চট্টগ্রামের লালখান বাজার থেকে হেফাজত নেতা মুফতি হারুন ইজহারকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটেলিয়ন (র‍্যাব)-৭। তবে এ ব্যাপারে র‍্যাবের পক্ষ থেকে কোন বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

বুধবার (২৮ এপ্রিল) রাত ১২টার দিকে জামেয়াতুল উলুম আল ইসলামিয়া মাদরাসা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন হারুন ইজহারের ব্যক্তিগত সহকারী মো. ওসমান।

হারুন ইজাহার সদ্য বিলুপ্ত হেফাজত ইসলামের শিক্ষা ও সংস্কৃতি সম্পাদক ছিলেন। তিনি ইসলামী ঐক্যজোটের একাংশের চেয়ারম্যান মুফতি ইজহারুল ইসলামের ছেলে।

হারুন ইজহারের ব্যক্তিগত সহকারী মো. ওসমান বলেন, ‘আনুমানিক রাত সাড়ে ১১ টার দিকে পুলিশ ও র‍্যাবের সদস্যরা প্রথমে মাদ্রাসার চারপাশে ঘিরে ফেলে। পরে শায়খকে গ্রেফতার করে নিয়ে যায়।’

এর আগে ২০১৫ সালে দুই দফা গ্রেফতার হয়েছিলেন হারুন ইজহার৷ তার

বিরুদ্ধে হেফাজতে ইসলামের ব্যানারে সহিংসতার ইন্ধন দেওয়ার অভিযোগ রয়েছে। এছাড়াও বিভিন্ন সময়ে তার বিরুদ্ধে জঙ্গি সংশ্লিষ্টতার অভিযোগও উঠে এসেছে বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে।

হেফাজতের নাশকতার আট মামলাসহ মোট ১১টি মামলা বিচারাধীন রয়েছে তার বিরুদ্ধে।

উল্লেখ্য, ২০১৩ সালের ৭ অক্টোবর মুফতি হারুন পরিচালিত লালখান বাজার মাদ্রাসায় গ্রেনেড বিস্ফোরণের ঘটনায় কমপক্ষে পাঁচ জন আহত হন। তাদের মধ্যে দুইজন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: