দলের প্রতিষ্ঠাতা ও সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের মুক্তিযুদ্ধের খেতাব বাতিলের সিদ্ধান্তে আগামী বুধবার ১৭ ফেব্রুয়ারি বরিশাল বিভাগ বাদে দেশের সব মহানগর ও জেলায় প্রতিবাদ সমাবেশ ও বিক্ষোভ কর্মসূচির ঘোষণা দিয়েছেন বাংলাদেশ ন্যাশনাল পার্টি বিএনপি।

জনগণের দৃষ্টি ভিন্নখাতে নেয়ার জন্য মুক্তিযুদ্ধের ৫০ বছর পর উদ্দেশ্যমূলকভাবে প্রতিষ্ঠিত সত্যকে নিয়ে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে সরকার, মন্তব্য করেছেন বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন।

রোববার (১৪ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে বিএনপির গুলশান চেয়ারপার্সন কার্যালয়ে, জাতীয় স্থায়ী কমিটির সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন দলের খন্দকার মোশাররফ হোসেন। এসময় তিনি এ কর্মসূচি ঘোষণা দেন।

সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, নির্বাচন প্রক্রিয়াকে ধ্বংস করেছে সরকার। দেশে অপশাসন চালাচ্ছে তারা। সরকারের অপকর্মের বিরুদ্ধে সোচ্চার থাকবে বিএনপি। এরই ধারাবাহিকতায় বিএনপি সরকার পতনের আন্দোলন অব্যাহত থাকবে।

তিনি অভিযোগ করেন, শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে বাধা দিচ্ছে সরকার। দেশে বিরোধীদল থাকুক সেটাই চায় না তারা।

আলজাজিরার বিরুদ্ধে এখনও সরকার বস্তুনিষ্ঠ প্রতিবাদ জানাতে পারেনি বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

একটি সোর্সের (ভারতের সিরাম ইনস্টিটিউট) ওপর নির্ভর করে, সরকারের করোনা ভ্যাকসিন আনা সমীচীন হচ্ছে না বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান বলেন, আলজাজিরার মতো গণমাধ্যমকে বিএনপি প্রভাবিত করতে পারে না। প্রতিবেদনে যা উঠে এসেছে তা সত্য। সরকার এ বিষয়ে কোনো যৌক্তিক প্রমাণ তুলে ধরতে পারেনি।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: