যশোরে শিশুসন্তানের দুধ কিনে বাড়ি ফেরার পথে আফজাল হোসেন (৩৫) নামে এক যুবককে কুপিয়ে হত্যা করেছে প্রতিপক্ষ। রবিবার (২৯ মে) রাত ৯টার দিকে শহরের নাজির শংকরপুর চাতালের মোড়ে এ ঘটনা ঘটে। হাসপাতালে নেওয়ার আধা ঘণ্টা পর তার মৃত্যু হয়। নিহত আফজাল শহরের নাজিরশংকরপুর এলাকার কবিরের বাড়ির ভাড়াটিয়া সোলায়মান হোসেনের ছেলে।

নিহতের বাবা সোলাইমান হোসেন বলেন, শহরের নাজির শংকরপুর চাতালের মোড়ে আমার একটি চায়ের দোকান আছে। আফজাল আমার দোকানেই ছিল। রাত ৮টার দিকে সে তার ছয় দিনের শিশুপুত্রের জন্য দুধ নিয়ে বাড়ি ফিরছিল। চাতালের মোড়ের পুকুরপাড়ে পৌঁছালে সন্ত্রাসীরা তাকে কুপিয়ে জখম করে। এ সময় দুটি বোমার শব্দ শোনা যায়। পরে লোকজন তাকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। তিনি বলেন, আফজাল দিনমজুর ছিল। পাশাপাশি আমার চায়ের দোকানে বসে দোকানদারি করতো। ছয় দিন আগে তার একটি পুত্রসন্তান হয়। আরও দুটি ছেলে আছে আফজালের।

স্থানীয়রা জানায়, কিছু দিন আগে নাজির শংকরপুর কোল্ডস্টোরেজ মোড়ের সুজন ওরফে ট্যারা সুজনের সাথে আফজালের বিরোধ সৃষ্টি হয়। আফজালের হাতে মারপিটের শিকার হয় সুজন। সেই প্রতিশোধ নিতে সুজন ও তার গ্রুপের সদস্যরা আফজালকে কুপিয়ে হত্যা করেছে। সুজনের নামেও একাধিক মামলা আছে থানায়। রমজান মাসের কয়েকদিন আগে সে জেল থেকে মুক্তি পায়। এরপর সুজনের সাথে বিরোধ সৃষ্টি হয়।

রমজান নামে এক প্রত্যক্ষদর্শী জানান, তিনি নাজির শংকরপুর জিরোপয়েন্টে ছিলেন। রাত ৯টার দিকে তিনটি ইজিবাইকে করে ১৪/১৫ জন জিরোপায়েন্ট থেকে একটু দক্ষিণ দিকে চাতালের মোড়ের পুকুরপাড়ে দাঁড়িয়ে ছিল। আফজাল পৌঁছানো মাত্রই তাকে অস্ত্র দিয়ে কোপ মারে। এ সময় চিৎকার শুনে তিনিসহ অন্যরা এগিয়ে গেলে সন্ত্রাসীরা পরপর দুইটি ককটলে বিস্ফোরণ ঘটায়। পরে তারা চলে গেলে আশপাশের লোকজন এগিয়ে গিয়ে আফজালকে একটি রিকশায় করে যশোর জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যায়। আধাঘণ্টা পর আফজালের মৃত্যু হয়। ঘটনার সময় সুজনকে দৌঁড়ে যেতে দেখেছে ওই এলাকার লোকজন।

হাসপাতলের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. সোহান জানিয়েছেন, রোগীর মাথা ও ঘাড়ের পেছনে ধারালো অস্ত্রের কোপ রয়েছে। অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে তার মৃত্যু হয়েছে। যশোরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বেলাল হোসাইন জানান, নাজির শংকরপুর চাতালের মোড়ে সন্ত্রাসীদের আক্রমণে আফজাল নামে এক যুবক নিহত হয়েছে। ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের আটকে ওই এলাকায় পুলিশি অভিযান চলছে।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: