মোদী বিরোধী এবং গতকাল মুসল্লিদের উপর হামলা ও নিহতের ঘটনাকে কেন্দ্র করে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে থেকে যুব অধিকার পরিষদের ১০ জন নেতাকর্মীকে আটক করেছে পুলিশ। এদের মধ্যে যুব অধিকার পরিষদের আহ্বায়ক আতাউল্লাহ

শনিবার (২৭ মার্চ) ভাসানী অনুসারী আয়োজিত এক প্রতিবাদ সমাবেশ শেষ হওয়ার পর তাদের আটক করা হয়।

এ প্রতিবাদ সমাবেশের প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গণ স্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী। এছাড়াও বক্তব্য দেন গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক জোনায়েদ সাকী, ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরুল হক নুর।

আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করে রমনা বিভাগের ডিসি সাজ্জাদুর রহমান বলেন, গতকালের ঘটনায় তারা জড়িত আছে কিনা সে বিষয়ে পর্যবেক্ষণ করে দেখা হবে। যদি তাদের কোনো সম্পৃক্ততা না পাওয়া যায় তাহলে তাদেরকে যাচাই-বাছাই শেষে ছেড়ে দেয়া হবে।

ভাসানী পরিষদের নেতা কর্মীরা অভিযোগ করে বলেন, আমাদের শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদ সমাবেশে শেষে পুলিশ সম্পূর্ণ অন্যায় ভাবে বাধা সৃষ্টি করে এবং পুলিশ আমাদের বেশ কয়েকজনকে আটক করে নিয়ে যায়।

প্রত‌্যক্ষ‌্যদশী একজন জানান, সমা‌বেশ শে‌ষে পু‌লি‌শের সা‌থে নেতাকর্মী‌দের ধাক্কা ধা‌ক্কি লা‌গে এসময় পু‌লিশ ৮/১০ কে আ‌টোক ক‌রে। আইনশৃংখলা এক সদস্য নাম না বলার শর্তে ব‌লেন, ১১ জনকে আটকক করা হ‌য়ে‌ছে।

জানা যায়, মোদী বিরোধী এবং গতকাল মুসল্লিদের উপর হামলার ও নিহতের ঘটনাকে কেন্দ্র করে জাতীয় প্রেসক্লাবে এক প্রতিবাদ কর্মসূচি করে ভাসানী অনুসারী পরিষদ।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: