গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেছেন, সরকারের কাছ থেকে বিনা সুদের ঋণ নিয়ে গাড়ি কেনা সরকারি কর্মকর্তাদের ৬৫ শতাংশই সেইসব গাড়ি উবারে ভাড়ায় দেন। সরকারের কাছ থেকে ঋণ নিয়ে গাড়ি কিনে এসব কর্মকর্তা সরকারি পুলের আরও একাধিক গাড়ি ব্যবহার করেন বলেও মন্তব্য করেন তিনি। বৃহস্পতিবার (১০ জুন) বেলা ১২ টায় ধানমন্ডির গণস্বাস্থ্য নগর হাসপাতালে বীর উত্তম মেজর হায়দার মিলনায়তনে এক আলোচনা সভায় তিনি এ মন্তব্য করেন। সচেতন নাগরিকদের দৃষ্টিতে ২০২১-২০২২ জাতীয় বাজেটের ওপর এ আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

তিনি বলেন, দীর্ঘদিন ধরে দেশে রাজনৈতিক সংকট চলছে। আজকে সিরিয়ার নির্বাচন নিয়ে ইউরোপীয় ইউনিয়ন, আমেরিকা বলছে সেখানে জাতিসংঘের তত্বাবধানে একটি নির্বাচন দেওয়া দরকার। সে ক্ষেত্রে আমার মনে হয় আমাদের দেশের রাজনীতিবিদদের ও বিশিষ্টজনদের এই বিষয়টি সামনে আনা উচিৎ। হয় তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থা ফিরিয়ে আনা অথবা সুষ্ঠু নিরপেক্ষ নির্বাচন ফিরিয়ে আনা অন্যথায় জাতিসংঘের সরাসরি তত্ত্বাবধানে নির্বাচন অনুষ্ঠিত করা। তাহলেই কেবল আমরা সেই জনগণের কাঙ্ক্ষিত বাজেট বা আমরা যেই উন্নয়ন চাই তা আমরা দেখতে পাবো।

প্রস্তাবিত বাজেটে অর্থমন্ত্রী দুর্নীতিকে উৎসাহিত করার অনেক সুযোগ রেখেছেন বলে উল্লেখ করে জাফরুল্লাহ বলেন, সরকারি কর্মকর্তা ৩০ লাখ টাকা পর্যন্ত বিনা সুদে সরকারের থেকে লোন নিচ্ছেন গাড়ি কেনার জন্য। প্রতি মাসে ৫০ হাজার টাকা নেন সেই গাড়ি রক্ষণাবেক্ষণের জন্য। কিন্তু তাদের ৬৫ শতাংশই সেই গাড়ি উবারে ভাড়ায় খাটান আর সরকারি পুল থেকে আরও এক বা দুটি গাড়ি নেন। অর্থমন্ত্রীর টাকার দরকার হয়, এ জন্য তিনি ট্যাক্স (কর) বসান। কিন্তু সেই কর এমনভাবে বসিয়েছেন যেখানে অনেক ফাঁকফোকর রয়েছে, যার মধ্যে দিয়ে দুর্নীতির সুযোগ রয়েছে।

অর্থমন্ত্রীর প্রস্তাবিত বাজেটে তার ব্যক্তিগত পেশা ও শ্রেণির প্রতিফলন হয়েছে বলেও মন্তব্য করেন জাফরুল্লাহ। তিনি বলেন, বাজেট হওয়া উচিত নাগরিকদের কারণে, বাজেট নাগরিকদের ‘এফেক্ট’ করে। কিন্তু এই বাজেট হয়েছে অর্থমন্ত্রীর ব্যক্তিগত পেশা ও শ্রেণির বাজেট। এখনও ব্রিটিশ আমলের মতো বাজেট পেশ করা হয় যেখানে বাজেট ঘোষণার আগে কেউ কিছু জানে না। অথচ এটা এমন হতে পারতো যে, বাজেট সংসদে উত্থাপন করার আগে সেটা প্রকাশ করা হবে। মানুষজন পথেঘাটে, পাড়া-মহল্লায় সেটা নিয়ে আলোচনা করবে। সবার থেকে প্রতিক্রিয়া নিয়ে তারপর একটি বাজেট ঘোষণা করা হবে।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: