স্বপ্নের পদ্মা সেতু উদ্বোধনের পর শনিবার (২৫ জুন) মাদারীপুরের শিবচরে আওয়ামী লীগের জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য দিচ্ছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। উদ্বোধন ও সভা যখন শেষের পর্যায়, হঠাৎ করেই মঞ্চের সামনে হাজির হয় এক তরুণী, চারদিকে কড়া নিরাপত্তার মধ্যেই মঞ্চের সামনের সেই পানিতে নেমে সাঁতরাতে দেখা যায় ওই তরুণীকে।

কাঁঠালবাড়ি ইউনিয়নের বাংলা বাজার এলাকার ওই ঘাটে সমাবেশ মঞ্চ সাজানো হয়েছিল পদ্মা সেতুর আদলে। মঞ্চের সামনেই পানি আর নৌকা সাজিয়ে তৈরি করা হয়েছিল নদীর পরিবেশ। এমন অবস্থাতেই ঘটে এই কৌতুহল ঘটনা। সাতরে পানিতে নেমে প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে বেশ কিছু কথা বলেন ওই তরুণী, প্রধানমন্ত্রীও সেই তরুণীর সঙ্গে কথা বলেন। এরপরই সকলে জানতে চান, প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কি কথা বলেন সেই তরুণী?

সমাবেশে মঞ্চে প্রধানমন্ত্রীর পাশে থাকা আওয়ামী লীগ নেতাদের মধ্যে দলের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপ জানান, মেয়েটি বলছিল, আমার কিছু নাই, আমারা কিছু নাই, আমারে কিছু একটা করে দেন।’ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী তাকে বলেন, আমি দেখব, তুমি এখন ওখানে যাও। আমি তোমাকে দেখতে বলব। পানি থেকে আগে ওই দিকে যাও।

আওয়ামী লীগের এ নেতা আরও বলেন, আমি তখন মেয়েটিকে বললাম, তোমাকে দেখবেন, তুমি পুলিশের কাছে যাও। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বলার পর মেয়েটি কিনারের দিকে যাওয়া শুরু করে।

মাদারীপুরের পুলিশ সুপার গোলাম মোস্তফা রাসেলও ওই তরুণীর পরিচয় জানাতে পারেননি। তিনি বলেছেন, ওই ঘটনার পর মেয়েটি তার বাসায় চলে গেছেন। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী অনেক মানবিক। তার সাথে কথা বলে তিনি আরেকবার মানবিকতার পরিচয় দিয়েছেন।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: