সম্প্রতি তাকে ঘিরে সমালোচনা হচ্ছিল। তিনি বাংলাদেশ ক্রিকেটের মি. ডিপেন্ডেবল খ্যাত মুশফিকুর রহিম। বেশ কয়েক সিরিজ ধরেেই তার ব্যাটে বড় রানের দেখা মিলছিল না। সেই আলোচনায় জল ঢেলে দেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। কয়েকদিন আগে তিনি বলেন, ‘রিয়াদ টেস্ট থেকে সরে এসেছে। তামিম টি-টোয়েন্টি খেলছে না। মুশফিক এখনও খেলছে, আমি নিশ্চিত ওর সিদ্ধান্তও জানা যাবে। ও নিশ্চয়ই চিন্তাভাবনা করছে। আমরা চাই না আমাদের খেলোয়াড়রা মন খারাপ করুক। তারা হাসিমুখে খেলুক।’

এরপর থেকেই কোনো ফরম্যাট থেকে সরে দাড়াবেন মুশফিক সেই গুঞ্জন উঠতে থাকে। টেস্ট এবং টি-২০ ফরম্যাটে রান খরা যাচ্ছিল তার। টি-২০ থেকে তার বাদ পড়ার গুঞ্জনও ক্রিকেট পাড়ায় জোরালো। দুই বছর টেস্টে সেঞ্চুরি পাননি দেশসেরা টেস্ট ব্যাটার। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্টে ওই রান খরা কেটেছে তার।

ক্রিজে মাথা পুতে পড়ে থেকে রোদ-বৃষ্টি সামলে মুশি খেলেছেন ২৮২ বলে ১০৫ রানের ইনিংস। ক্যারিয়ারের অষ্টম টেস্ট সেঞ্চুরি পেয়েছেন। প্রথম বাংলাদেশি ব্যাটার হিসেবে টেস্টে ৫ হাজার রান পূর্ণ করার কীর্তি গড়েছেন। মাত্র চারটি চারের মারে ওই ইনিংস খেলে অনেক প্রশ্নের উত্তর দিয়ে দিয়েছেন মুশি।

স্বামীর সেঞ্চুরির পরেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তার স্ত্রী জান্নাতুল মন্ডি ছুড়ে দিয়েছেন প্রশ্ন। মুশফিক সরে গেলে বা বিদায় নিলে বোর্ডের হাতে বিকল্প আছে কিনা সেই প্রশ্ন তুলেছেন তিনি। নিজের ইনস্টাগ্রামে মুশফিকের স্ত্রী মন্ডি লিখেছেন, ‘আমরা হাসি মুখেই বিদায় নেব ইনশাআল্লাহ! তবে আপনাদের রিপ্লেসমেন্ট (বিকল্প) আছে তো? সেদিকেও একটু নজর দিলে বাংলাদেশ ক্রিকেটের উন্নয়ন হতো!’

মুশফিকের স্ত্রীর এমন পোস্টের পর সমর্থকদেরও আর বুঝতে বাকি নেই, ক্ষোভ বা হতাশার জায়গা থেকেই এমন প্রশ্ন ছুড়ে দিয়েছেন তিনি।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: