স্ত্রী-শ্যালিকা দুজনই অন্তঃসত্ত্বা, কারাগারে যুবক

ময়মনসিংহের ফুলপুরে স্ত্রী চার মাস পর শ্যালিকা অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার ঘটনায় আলম মিয়া (৩০) নামে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। আলম মিয়া উপজেলার ফুলপুর ইউনিয়নের সদর ইউনিয়নের নয়াগাঁও প্রকাশ নগুয়া গ্রামের মৃত আহমাদ আলীর ছেলে। সে পেশায় একজন নির্মাণ শ্রমিক।শুক্রবার (৫ নভেম্বর) বিকালে চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে তুলা হলে বিচারক আলম মিয়াকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

বিষয়টি বিডি২৪লাইভকে নিশ্চিত করেছেন ফুলপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আব্দুল্লাহ আল মামুন। এর আগে বৃহস্পতিবার (৪ নভেম্বর) রাত পৌনে ১১ টার দিকে নিজ বাড়ি নয়াগাঁও প্রকাশ নগুয়া গ্রাম থেকে তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

পুলিশ ও ভিকটিমের পরিবার সূত্র জানায়, বড় বোনকে বিয়ের পর থেকেই আলমের কু-দৃষ্টি পড়ে তার শ্যালিকার উপর। বিয়ের পর থেকে বিভিন্ন সময় কু-প্রস্তাব দিত আলম। চার মাস আগে ভিকটিম প্রাইভেট পড়তে কলেজের উদ্দেশ্যে বাড়ি থেকে বের হলে অপহরণ করে আলম মিয়া। বিষয়টি ভিকটিমের পরিবার জানতে পেরে তার পরিবারের সাথে যোগযোগ করলে মেয়েকে ফেরত দিবে জানায়। কিন্তু ৪ মাস অতিবাহিত হয়ে গেলেও মেয়েকে ফেরত দেয়নি। লোক মারফত জানতে পারে শ্যালিকাকেও বিয়ে করেছে আলম এবং তারা দুই বোনই অন্তঃসত্ত্বা। এমতাবস্তায় ফুলপুর থানায় মামলা দায়েরের পর আলমকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

ওসি আব্দুল্লাহ আল মামুন আরও বলেন, ভিকটিমকে আদালতে হাজির করলে বিচারক তার বাবার হেফাজতে দেন। এখন দুই বোনই বাবার হেফাজতে আছে বলেও জানান তিনি।

     আরো পড়ুন....

পুরাতন খবরঃ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১  

ফেসবুকে আমরাঃ