১২ বছরের শিশুর হাতে তিন বছরের শিশু খুন

১২ বছরের শিশু হিজবুল্লাহ আব্বাসকে দুরন্তপনার জন্য বকা দিয়েছিলেন প্রতিবেশী তিন বছরের শিশু সুমাইয়ার বাবা মিলন খান।

সেই আক্রোশে সুমাইয়াকে মোবাইল ফোন চার্জারের তার জড়িয়ে শ্বাসরোধে হত্যা করেছে হিজবুল্লাহ আব্বাস।

বুধবার সন্ধ্যার পর হিজবুল্লাদের বাড়ি থেকে সুমাইয়া মাহী নামের তিন বছরের শিশুর বস্তাবন্দী লাশ উদ্ধার করেছেন রাজশাহীর গোদাগাড়ী থানা পুলিশ।

শিশু সুমাইয়াকে হত্যার অভিযোগে হিজবুল্লাহকে গ্রেফতার করা হয়েছে। হৃদয়বিদারক এই ঘটনায় স্তম্ভিত পুলিশসহ পুরো এলাকাবাসী। সুমাইয়ার লাশ ময়নাতদন্তের জন্য রাতেই রাজশাহী মেডিকেল কলেজ মর্গে পাঠানো হয়েছে।

গোদাগাড়ী থানার ওসি কামরুল ইসলাম জানান, গোদাগাড়ীর রিশিকুল ইউনিয়নের আলোকছত্র গ্রামের মিলন খান দিন কয়েক আগে দুরন্তপনার জন্য প্রতিবেশী স্কুল শিক্ষক জাহানারা বেগমের সপ্তম শ্রেণিতে পড়ুয়া ছেলে হিজবুল্লাহ আব্বাসকে বকা দিয়েছিলেন। বুধবার হিজবুল্লাহকে বাড়িতে রেখে তার মা স্কুলে চলে যান।

বিকেলের দিকে অপর দুই শিশুর সঙ্গে সুমাইয়া মিলনদের বাড়ির আঙ্গিণায় খেলছিল। এ সময় দুই শিশুকে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দিয়ে সুমাইয়াকে ঘরের ভেতরে নিয়ে গিয়ে মোবাইল ফোনের চার্জারের তার গলায় জড়িয়ে শ্বাসরোধে হত্যা করে হিজবুল্লাহ।

     আরো পড়ুন....

পুরাতন খবরঃ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০  

ফেসবুকে আমরাঃ