বিয়ের ১৩ বছরেই ১১ সন্তানের জন্ম দিয়েছেন নিউ মেক্সিকোর বাসিন্দা কোর্টনি রজার্স নামের এক নারী। নিজের ১১ সন্তান নিয়ে প্রায়ই সোশ্যাল মিডিয়ায় হেনস্থার শিকার হতে হয় তাকে। তবে এসব নিয়ে মাথা ঘামান না তিনি। ১১ সন্তান হওয়ার পরও জন্ম নিয়ন্ত্রণে একদমই ইচ্ছা নেই তার। গর্ভনিরোধক বা অন্য কোনও জন্ম নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা ব্যবহারে ঘোর আপত্তি কোর্টনির। খবর- হিন্দুস্তান টাইমস।

দ্য সানকে দেওয়া সাক্ষাত্কারে কোর্টনি বলেন, অনেকেই আমাকে ও আমার পরিবারকে খারাপ চোখে দেখে। তারা বড় পরিবার পছন্দ করে না। দেশে খাদ্য, বাসস্থান কমতে থাকার জন্য আমাদের দায়ী করে। তবে আমি বিরক্ত হই না। কোর্টনির স্বামী একজন যাজক। ২০০৮ সালে তাদের বিয়ে হয়। এরপর থেকে প্রতি বছর একটি করে সন্তানের জন্ম দিয়েছেন ৩৭ বছর বয়সী কোর্টনি। বেশ কয়েকবার মিসক্যারেজও হয়েছে তার। তবে এখনও থামতে নারাজ তিনি। আপাতত ১২তম সন্তানের মা হওয়ার মুখে কোর্টনি। কোর্টনি নিজেই তার সন্তানদের যত্ন নেন। সন্তানদের হোমস্কুলিং করান তিনি।

শুধু তাই নয়, খাওয়া দাওয়ার খরচ বাঁচাতে নিজেদের ফার্মেই শাকসবজি ফলান তারা। ১১ সন্তানের বাবা ক্রিস যাজকের কাজে কিছু বেতন পান। কিন্তু তাতে ১৩ জনের পরিবারের খরচ টানা কঠিন। সেই কারণেই আরও টুকটাক পার্ট-টাইম কাজ করেন তিনি। তারা জানালেন, শুধুমাত্র মুদিখানার কেনাকাটাতেই সপ্তাহে ৪০০ থেকে ৫০০ ডলার খরচ হয় তাদের। কোর্টনির স্বামী জানান, তারাও ১০ ভাইবোন। সেটাই চেয়েছিলেন তিনি।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: