৩৬ ঘণ্টা আগেই বরিশালে বিএনপির সমাবেশস্থল লোকে লোকারণ্য

বিএনপির বিভাগীয় গণসমাবেশকে কেন্দ্র করে ৩৬ ঘণ্টা আগেই মিছিল-স্লোগানে সরগরম হয়ে উঠেছে বরিশালের বঙ্গবন্ধু উদ্যান। বৃহস্পতিবার (৩ নভেম্বর) সকাল থেকেই বিভাগের বিভিন্ন উপজেলা থেকে নেতা-কর্মীরা এসে বঙ্গবন্ধু উদ্যানে জড়ো হচ্ছেন। এছাড়া উদ্যানে একদিকে চলছে মঞ্চ নির্মাণের কাজ। অন্যদিকে ব্যানার ফেস্টুন লাগাচ্ছেন নেতা-কর্মীরা। আর দলে দলে নেতা-কর্মীরা এসে মিছিল আর স্লোগানে মুখর করে রেখেছেন পুরো উদ্যান।

পটুয়াখালীর গলাচিপা থেকে আসা যুবদল কর্মী সাদিকুর রহমান জানান, বাস চলাচল বন্ধ ঘোষণা করে দেওয়ায় দুদিন আগেই বরিশালে এসেছি। কোনো হোটেল খালি না থাকায় এক আত্মীয়ের বাসায় উঠেছি।

বরগুনা থেকে আসা এক ছাত্রদল নেতা শরিফুল ইসলাম জানান, নেতা-কর্মীদের নিয়ে বুধবার রাতেই বরিশালে এসেছি। দুদিন আগে থেকে হোটেল বুকিং দিয়ে রাখায় কোনো রকমে রুম পেয়েছি।

ভোলার দৌলতখান উপজেলার সৈয়দপুর ইউনিয়ন যুবদলের সভাপতি মো. আবু জাফর দিদার বলেন, লঞ্চ চলাচল বন্ধ থাকায় কোনো রকম নৌকা দিয়ে ফেরিতে পার হয়ে বরিশাল পৌঁছেছি। তাও আমাদের অনেক নেতা-কর্মীকে ফেরির স্টাফরা জোর করে নামিয়ে দিয়েছে।

ভোলার দৌলতখান উপজেলার সৈয়দপুর ইউনিয়ন যুবদলের সাধারণ সম্পাদক মো. মোসলেহ উদ্দিন সিকদার বলেন, কোথাও কোনো হোটেল খালি পাইনি। আজ রাতে নেতা-কর্মীদের নিয়ে মাঠেই থাকব। জানি হোটেলে খাবার থাকবে না। এজন্য আমাদের নেতারা মাঠে খাবারের ব্যবস্থা করবেন।

গণসমাবেশ বাস্তবায়ন কমিটির মিডিয়া উপ-কমিটির সদস্য সচিব আবু নাসের মো. রহমাতুল্লাহ বলেন, আওয়ামী লীগের অপকৌশলের বিরুদ্ধে বিএনপির নেতা-কর্মীদের পাল্টা জবাব হচ্ছে দুদিন আগেই মাঠে আসছেন তারা। সরকার কোনো বাধা সৃষ্টি করে বরিশালের গণসমাবেশ বানচাল করতে পারবে না।

     আরো পড়ুন....

পুরাতন খবরঃ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০  

ফেসবুকে আমরাঃ