মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে নতুন বাজার দারুল কুরআন হাফিজিয়িা মাদরাসার ছাত্র মাত্র ৬ মাসে পুরো কোরআন শরিফ মুখস্থ করে বিস্ময় সৃষ্টি করে হাফেজ হওয়ার সৌভাগ্য অর্জন করেছেন। শ্রীমঙ্গল শহরতলীর সবুজবাগ এলাকার সমর মিয়ার ছেলে হাফেজ তানিম। বুধবার (৩১ মার্চ) রাতে তানিমের মাথায় পাগড়ি পরিয়ে দেন নতুন বাজার দারুল কুরআন হাফিজিয়া মাদরাসার প্রতিষ্ঠাতা হাফেজ মাওলানা জামাল উদ্দিন।

এ সময় এই মাদরাসার আরো তিনজন কুরআনে হাফেজের মাথায় পাগড়ি পরিয়ে দেয়া হয়। তারা হলেন হাফেজ আশরাফ, হাফেজ আব্দুল কাদির ও হাফেজ রিয়াদ আহমদ। পাগড়ি পরানো অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মসজিদ কমিটির সাধারণ সম্পাদক শহরের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মো. ইউসুফ আলী, মসজিদ কমিটির কোষাধ্যক্ষ হাজী আব্দুল মালেক ও হাফেজ রাশেদ তালুকদার প্রমুখ। অনুষ্ঠানে হাফেজ রাশেদ তালুকদার ৪জন হাফেজকে চার হাজার টাকা পুরস্কার প্রদান করেন।

১৩ বছর বয়সী এই হাফেজে কোরআনের শিক্ষগণের নাম হলো হাফেজ মাওলানা জামাল উদ্দিন, হাফেজ মাওলানা মুজাম্মিল হোসাইন মিলাদ ও হাফেজ মাহমুদুল হাসান।

এই মাদরাসার প্রতিষ্ঠাতা ও নতুন বাজার জামে মসজিদের ইমাম এবং খতিব হাফেজ মাওলানা জামাল উদ্দিন জানান, মৌলভীবাজার জেলায় এখন পর্যন্ত কেউ এতো কম সময়ে হাফেজ হতে পারেননি, যেটা তানিম পেরেছে। এই মাদরাসার সার্বিক উন্নয়নে তিনি সমাজের দানশীল ব্যক্তিদের এগিয়ে আসার আহবান জানান।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: