কুমিল্লার আলোচিত ছাত্রলীগ নেতা দেলোয়ার হোসেন হত্যার মূল পরিকল্পনাকারী নগরীর ২৬ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আবদুস সাত্তার বলে অনুসন্ধানে জানা গেছে। সাত্তারের বিরুদ্ধে চৌয়ারা এলাকায় চাঁদাবাজি, বাজার নিয়ন্ত্রণসহ নানা অপকর্মে জড়িত থাকার অভিযোগ রয়েছে। যুবলীগ কর্মী জিল্লুর রহমান চৌধুরী হত্যা মামলারও তিনি ২ নম্বর আসামি। ১১ নভেম্বর নগরীর চৌয়ারায় স্ত্রী-সন্তানের সামনে কুপিয়ে হত্যা করা হয় জিল্লুরকে।

২০১৮ সালের ২৬ নভেম্বর রাতে নগরীর ২৬ নম্বর ওয়ার্ডের শামবক্সি (ভল্লবপুর) এলাকায় সন্ত্রাসীরা মোটরসাইকেলে করে এসে ছাত্রলীগ নেতা দেলোয়ারকে মাথায় গুলি করে হত্যা করে। দেলোয়ার কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ছিলেন। ঘটনার পরদিন নিহতের বড় ভাই শাহাদাত হোসেন নয়ন বাদী হয়ে সদর দক্ষিণ থানায় মামলা করেন। মামলায় ওই গ্রামের রেজাউল করিম ও কাউছারসহ অজ্ঞাতপরিচয় অনেককে আসামি করা হয়। প্রধান আসামি রেজাউলের বিরুদ্ধে হত্যা, অস্ত্রসহ মোট ৩০টি মামলা রয়েছে। দেলোয়ার হত্যা মামলাটি বর্তমানে তদন্ত করছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)।

ওই মামলায় ২৪ সেপ্টেম্বর পিবিআই রেজাউলের বিশ্বস্ত সহযোগী সদর দক্ষিণ থানার নোয়াগ্রাম গ্রামের আনোয়ার হোসেনকে প্রেপ্তার করে। পিবিআইর জিজ্ঞাসাবাদে সে দেলোয়ার হত্যার সঙ্গে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে। পরে আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিও দেয়। এতে সে জানিয়েছে, ছাত্রলীগ নেতা দেলোয়ার হত্যার মূল পরিকল্পনাকারী কাউন্সিলর আবদুস সাত্তার।

সূত্রঃ সমকাল

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: