কুমিল্লায় পরিবহন শ্রমিকদের মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত

মাজহারুল ইসলাম বাপ্পিঃ কুমিল্লা জেলা বাস ও মিনিবাস শ্রমিক ইউনিয়ন (রেজিঃ নং-২০২৬) এর উদ্যোগে জাঙ্গালিয়া কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনালে এবং কুমিল্লা জেলা ট্রাক,ট্যাংকলরী ও কাভার্ডভ্যান শ্রমিক ইউনিয়ন (রেজিঃ নং-২০২৪) এর উদ্যোগে ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়কের পদুয়ার বাজার বিশ্বরোড এলাকায় সড়ক পরিবহন আইন ২০১৮ এর শ্রমিক স্বার্থ পরিপন্থী ধারা বাতিলের দাবিতে বৃহস্পতিবার পৃথক পৃথক মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে।

জাঙ্গালিয়া কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনালে মানব বন্ধনে বক্তব্য রাখেন কুমিল্লা জেলা বাস ও মিনিবাস শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি মোহাম্মদ আলী,সাধারণ সম্পাদক কাজী মোতাহার হোসেন। পদুয়ার বাজার বিশ্বরোডে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন কুমিল্লা জেলা ট্রাক,ট্যাংকলরী ও কাভার্ডভ্যান শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি আলী হোসেন,সাধারণ সম্পাদক মোঃ তাজুল ইসলাম,কার্যকারী সভাপতি তরব আলী। মানব বন্ধনে বক্তারা বলেন,জাতীয় সংসদে সড়ক পরিবহন আইন -২০১৮ পাশ হয়েছে। এই আইনে শ্রমিক স্বার্থে অনেক ধারা সংযোজিত হলেও এমন কিছু ধারা যুক্ত করা হয়েছে যা সড়ক পরিবহন শ্রমিককের জীবিকাকে চরমভাবে জটিল করে তুলবে। আমাদের পক্ষে যা মেনে নেয়া কোন অবস্থাতেই সম্ভব নয়। এই আইন পাশ হবার পূর্বেই যোগাযোগ মন্ত্রণালয়ে সংসদীয় স্থায়ী কমিটিতে ফেডারেশনের পক্ষ থেকে যৌক্তিক দাবিগুলো তুলে ধরা হয়েছিল,কিন্তু বাস্তবে তার কোন প্রতিফলন আইনে ঘটেনি। আমাদের দাবিগুলো হচ্ছে- সড়ক দুর্ঘটনাকে একান্ত দুর্ঘটনা হিসেবে দেখে সকল মামলায় জামিনযোগ্য বিধান সন্নিবেশ করা, শ্রমিকের দন্ডে ৫ লক্ষ টাকার পরিবর্তে ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত অর্থদন্ডের বিধান যুক্ত করা,সড়ক দুর্ঘটনার জটিলতার মামলার তদন্ত কমিটিতে শ্রমিক ও মালিক প্রতিনিধিকে অন্তর্ভুক্ত করা,ড্রাইভিং লাইসেন্স পাওয়ার ক্ষেত্রে শিক্ষাগত যোগ্যতা ৮ম শ্রেণীর স্থলে ৫ম শ্রেণী নির্ধারণ করা,কগজপত্র চেকিং এর নামে সড়কে পুলিশের অহেতুক হয়রানী বন্ধ করা,স্কেলে জরিমানার পরিমাণ কমানো ও কারাদন্ডের বিধান বাতিল করা,আইনের কোন কোন ধারায় অর্থদন্ডের পরিমান উল্লেখ না থাকায় জটিলতা সৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা থাকায় এইসব ধারা সংশোধনের দাবী ও আলোচনার মাধ্যমে আন্যান্য আইন সংশোধনের উদ্যোগ নিতে হবে। যদি সরকার যথাসময় দাবি না মেনে নেয় তাহলে কঠোর আন্দোলনের হুশিয়ারী উচ্চারণ করেন বক্তারা।

এ সময় কুমিল্লা জেলা বাস ও মিনিবাস শ্রমিক ইউনিয়ন কার্যকারি সভাপতি আজাদ হোসেন,সহ-সভাপতি ফিরোজ,খোকন,ইউনুছ,যুগ্ম সম্পাদক আব্দুল বারেক,সহ-সাধারণ সম্পাদক মোঃ আনোয়ার হোসেন,হানিফ চৌধুরী,সেলিম আহাম্মদ,সাংগঠনিক সম্পাদক বাবুল মিয়া,আইন সম্পাদক ফেরদৌস,লাইন সম্পাদক মো: মফিজ মিয়াসহ ইউনিয়নের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন:

ভালো লাগলে শেয়ার করুনঃ