‘শেষ ভরসা নৌকায়’ কথাটি কোন শ্লোগান কিংবা রাজনৈতিক বক্তব্য মনে হলেও বাস্তবে এটি কুমিল্লা জেলার মুরাদনগর উপজেলা সদর এলাকার কোম্পানীগঞ্জ বাজারের হতাশা গ্রস্থ ব্যবসায়ীদের মুখের ভাষা।

অল্প বৃষ্টিতেই এখানে তলিয়ে যায় ছোট-বড় প্রায় কয়েক হাজার দোকান। যার ফলে নৌকার উপরেই শেষ ভরসা করতে হয় এখানকার ব্যবসায়ীদের।

কুমিল্লা উত্তর জেলার বৃহত্তম পাইকারি ও খুচরা ব্যবসায়ের কেন্দ্রস্থল হিসেবেই সবার কাছে পরিচিত এ বাজারটি।

সামান্য বৃষ্টি হলেই এখানে রাস্তার উপরে উঠে আসে ড্রেনের ময়লা-আবর্জনা এবং নোংরা দূষিত পানি। যার ফলে পানি বন্দী হয়ে পরতে হয় এখানকার প্রায় কয়েক হাজার দোকানদারকে। বছরের অধিকাংশ সময় বাজারের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক ও অলি-গলিতে পানি থাকার ফলে ক্রেতারা মালামাল ক্রয় করে নিয়ে যেতে নৌকার উপরেই করতে হয় শেষ ভরসা। আর সেই নৌকার দৃশ্য দূর থেকে দেখলে যে কারো মনে হবে এটি পানিতে ভাসমান একটি বাজার।

বাজারের বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, ড্রেনের উপর প্রভাবশালীরা দোকান নির্মাণ করার ফলে বন্ধ হয়ে গেছে পানি নিষ্কাশন ব্যবস্থা। যার ফলে প্রতিনিয়ত দোকানপাটের ভিতর পানি ঢুকে নষ্ট হচ্ছে আসবাবপত্র ও নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিস।

দোকানদাররা জানান, সামান্য বৃষ্টি হলেই বাজারের ভিতর হাঁটু পানি জমে যায়। তখন আর ক্রেতা থাকে না। মানুষ আসতে পারে না। আমরা চাই যত দ্রুত সম্ভব পানি নিষ্কাশনের ব্যবস্থা নেয়া হোক। এভাবে চলতে থাকলে বড় কোন ক্ষতির সম্মুখীন হয়ে আমরা ব্যবসা ছেড়ে চলে যেতে হবে।

এদিকে একই সাথে বেহাল অবস্থা হয়ে পরেও বাজার সংলগ্ন কুমিল্লা-সিলেট আঞ্চলিক মহাসড়ক ও কোম্পানীগঞ্জ- নবীনগর রোডের। রোডের উপর পানি জমে থাকায় মানুষ স্বাভাবিক ভাবে চলাফেরা করতে পারেনা। ফলে নষ্ট হচ্ছে বাজারের গুরুত্বপূর্ণ সকল সড়ক।

স্থানীয়রা জানান, বাজারের বাইরে কোম্পানীগঞ্জ নবীনগর রোড, নগরপাড় রোড, পল্লী বিদ্যুৎ অফিস রোডসহ বিভিন্ন সড়কে পানি জমে থাকে। কিছু কিছু জায়গায় রাস্তা ও ড্রেনের জায়গা অবৈধভাবে দখল কওে দোকানপাট ও স্থাপনা নির্মাণ করার কারণে সৃষ্টি হয় জলজট।

এ ব্যাপারে কোম্পনাীগঞ্জ বাজার কমিটির সভাপতি ও ইউপি চেয়ারম্যান হাজী কামাল উদ্দিন জানান, বাজারের জলাবদ্ধতার ব্যাপারে এমপি মহোদয়ের সাথে কথা বলেছি। তিনি জানিয়েছেন ইউএনও’র সাথে কথা বলে বাজারের স্থায়ী পানি নিষ্কাশনের বিষয়ে একটি সিদ্ধান্ত দিবেন।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার অভিষেক দাশ বলেন, এটি একটি বড় বাজার, বড় কাজ। আমরা এমপি মহোদয়ের সাথে আলাপ করে এই জলাবদ্ধতা স্থায়ী ভাবে নিরসনের সিদ্ধান্ত নেব।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: