কুমিল্লা বিভাগ ঘোষণা নিয়ে চক্রান্ত চলছে এখনও

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ কুমিল্লা সদর আসনের এমপি হাজী আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহার বলেছেন, অনেক জ্ঞানী, গুণী, বিশ্ববরেণ্য ব্যক্তিদের পদচারণায় ধন্য এই কুমিল্লা আজকে সবদিকে স্বয়ংসম্পূর্ণ। অনেক সূচকে কুমিল্লা এগিয়ে রয়েছে। আমরা বিভাগ নিয়ে আন্দোলন করেছি। কুমিল্লা বিভাগ ঘোষণা চুড়ান্ত হয়েও বিভাগ হচ্ছে না। বিভাগ নিয়ে চক্রান্ত চলছে। কুমিল্লার সবাইকে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে।

তিনি আরো বলেন, ৪১ সালে বিশ্বের ২১টি উন্নত রাষ্ট্রের একটিতে এ দেশকে পরিণত করার জন্য বর্তমান সরকারের প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা কাজ করে যাচ্ছেন। সরকারিভাবে গরিব দুস্থ্যদের জন্য আর্থিক চিকিৎসা সহায়তা দেয়ার কার্যক্রম ২০১২ সাল থেকে কুমিল্লায় চালু হয়েছে।

বিশ্ব হার্ট দিবস উপলক্ষে শুক্রবার কুমিল্লা টাউনহল মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হার্ট কেয়ার ফাউন্ডেশন কুমিল্লা, বাংলাদেশ আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। কুমিল্লায় এক শ’ শয্যার হৃদরোগ ইনস্টিটিউট প্রতিষ্ঠার ব্যাপারে সর্বাত্মক সহযোগিতার আশ্বাস ও ঐতিহ্যের কুমিল্লাকে এগিয়ে নেয়ার আহব্বান জানিয়ে এমপি বাহার বলেন, কুমিল্লার মানুষ সুস্থ থাকলেই কুমিল্লা এগিয়ে যাবে। তাই স্বাস্থ্য পরীক্ষার বিষয়ে সকলকে সচেতন হতে হবে। কেবল রোগ হলে বা রোগ রিস্কি পর্যায়ে পৌঁছলেই চিকিৎসকের স্মরণাপন্ন হওয়ার অভ্যাস পাল্টাতে হবে।

এবারে বিশ্ব হার্ট দিবসের প্রতিপাদ্য বিষয় ‘শেয়ার দ্য পাওয়ার’। অন্যদিকে কুমিল্লা হার্টকেয়ার ফাউন্ডেশনের স্লোগান হচ্ছে দৈনন্দিন জীবনধারা একটুখানি পাল্টালে হৃদরোগের সম্ভাবনাও কমতে থাকবে দ্বিগুণ তালে। আর এ স্লোগানের পথ ধরে জীবনধারার পরিবর্তনের মধ্যদিয়ে হার্ট অ্যাটাকসহ সব ধরনের রোগ প্রতিরোধের দায়িত্বটা আমাদেরকেই নিতে হবে। হৃদবান্ধব জীবনচর্চা শুরু করতে হবে। সকল রোগ থেকে মুক্ত থাকার অভ্যাস গড়ে তুলতে হবে।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন কুমিল্লার জেলা প্রশাসক মো: জাহাঙ্গীর আলম, জেলা সিভিল সার্জন ডা. মুজিবুর রহমান, জেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক জেড এম মিজানুর রহমান ও ইনার হুইল চেয়ারম্যান শারমিন হোসাইন।

ডা. মেধা ঘোষের সঞ্চালনায় দিবসের প্রতিপাদ্য বিষয়ের ওপর আলোচনায় ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতি হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক ড. তৃপ্তীশ চন্দ্র ঘোষ বলেন, হৃদরোগ এবং স্ট্র্রোক বর্তমান বিশ্বে মৃত্যুর এক নম্বর কারণ। যেসব অভ্যাসের কারণে হার্ট অ্যাটাক বা স্ট্রোকের সম্ভাবনা থাকে তা পরিত্যাগ করতে হবে। বক্তব্যে তিনি গত ১৩ বছর ধরে হৃদরোগ প্রতিরোধ আন্দোলনে হার্টকেয়ার ফাউন্ডেশনের কার্যক্রমের নানাদিক তুলে ধরেন। অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন হার্টকেয়ার ফাউন্ডেশনের সহ-সভাপতি ডা. মল্লিকা বিশ্বাস, সাধারণ সম্পাদক ডা. গোলাম শাহজাহান প্রমুখ। আলোচনা শেষে ময়নামতি মেডিক্যাল কলেজসহ কয়েকটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের হৃদরোগ প্রতিরোধে জনসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষে অনুষ্ঠিত ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতায় বিজয়ীসহ অংশগ্রহণকারীদের মাঝে প্রণোদনা পুরস্কার বিতরণ এবং পরে র‌্যালি অনুষ্ঠিত হয়।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: