ডেস্ক রিপোর্টঃ কলেজের সহপাঠি বন্ধুদের সাথে বেড়াতে গিয়ে চাঁদপুরের মেঘনা নদীর মোহনায় পানিতে ডুবে নিখোঁজ হয়েছে কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ড সরকারি মডেল কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র রাফিদুল ইসলাম। বুধবার (১২ জুন) ঈদের ছুটিতে কলেজ বন্ধ থাকায় বন্ধুদের সাথে চাঁদপুর ভ্রমণে গিয়ে নদীতে গোসল করতে নেমে প্রবল শ্রোতে পানিতে ডুবে নিখোঁজ হয় ওই শিক্ষার্থী। সে কুমিল্লা নগরীর শাকতলা এলাকার বন বিভাগের কর্মকর্তা রফিকুল ইসলামের একমাত্র ছেলে। বাসা টমসনব্রীজ এলাকায়। বুধবার দুপুর ১ টা থেকে সাড়ে ৬ টা পর্যন্ত নদীতে উদ্ধার অভিযান চালিয়েও লাশের সন্ধ্যান পাওয়া যায়নি। অন্ধকার হয়ে যাওয়ায় সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা থেকে উদ্ধার অভিযান স্থগিত রয়েছে, বৃহস্পতিবার ভোর থেকে আবারও অভিযান শুরু করা হবে বলে জানা গেছে।

>>আরো পড়ুনঃ  জিয়া বঙ্গবন্ধুর খুনীদের বিচার না করে চাকুরী দিয়ে পুরষ্কৃত করেছিল - মতিন খসরু

এদিকে পরিবারের একমাত্র ছেলে নদীর প্রবল শ্রোতে পানিতে ডুবে যাওয়ার খবরে শোকে মুর্ছা যাচ্ছেন তার বাবা ও মাসহ পরিবারের লোকজন, স্বজনদের আহাজারিতে ভারী হয়ে উঠেছে চারিদিক।

এদিকে কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ড সরকারি মডেল কলেজের অধ্যক্ষ ড. এ কে এম এমদাদুল হক , মায়মুন শরীফ রায়হান , জগলুল হাসান পাটোয়ারী ও অভিভাবক সদস্য ইঞ্জিনিয়ার জামিল আহম্মেদ সহ কয়েকজন অভিভাবক চাঁদপুরে অবস্থান করছেন।

কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ড সরকারি মডেল কলেজের অধ্যক্ষ ড. এ কে এম এমদাদুল হক সাংবাদিকদের জানান, কলেজে ঈদের ছুটি চলছে। বিকালে দুর্ঘটনার খবর পেয়ে তাৎক্ষণিকভাবে কলেজের কয়েকজন শিক্ষকসহ ঘটনাস্থলসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছি। তার মরদেহ উদ্ধারে চাঁদপুরের জেলা ও পুলিশ প্রশাসনসহ ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তাদের সাথে সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রাখছি। ফায়ার সার্ভিস সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে লাশ উদ্ধারে চেষ্টা চালাচ্ছে।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন:

ভালো লাগলে শেয়ার করুনঃ