ডেস্ক রিপোর্টঃ দুই যুগেরও বেশি সময় ধরে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া সরকারি ডিগ্রী কলেজের মাঠটি খেলাধুলার অনুপযোগী হয়ে আছে। ঘাস আর জঙ্গলে ভরে গেছে পুরো মাঠ। এছাড়া বছরের বেশিরভাগ সময় থাকে জলাবদ্ধ। শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, খেলাধুলার জন্য নয়, মাঠ ব্যবহৃত হচ্ছে আড্ডার জায়গা হিসেবে। এদিকে মাঠটি সংস্কার করে খেলাধুলার উপযোগী করার চেষ্টা চলছে বলে জানান কলেজ কর্তৃপক্ষ।

কোথাও কচু গাছ, কোথাও আবার বড় বড় ঘাস। অনেক স্থানে ছোট ছোট আগাছা- এমন চিত্র কুমিল্লার ভিক্টোরিয়া কলেজের খেলার মাঠের।

প্রতিষ্ঠার শতবর্ষ পার হওয়া ভিক্টোরিয়া সরকারি কলেজে বর্তমানে ২৭ হাজারেরও বেশি শিক্ষার্থী রয়েছে। এ কলেজে নেই তেমন অবকাঠামোগত সমস্যা। তবে ক্যাম্পাসের ভেতরের মাঠটি খেলার অনুপযোগী হয়ে আছে দুই যুগের বেশি সময় ধরে। নব্বই দশকের পর থেকে এ মাঠে খেলাধুলা হয় না বললেই চলে। খেলাধুলার পরিবেশ না থাকায় নানা অপকর্মে জড়িয়ে পড়ার অভিযোগও রয়েছে।

>>আরো পড়ুনঃ  কুমিল্লার মহাসড়কে অটোরিকশার অবাধ চলাচল, বাড়ছে দুর্ঘটনা

এদিকে, মাঠের চারদিকে গড়ে উঠেছে বিভিন্ন স্থাপনা। ফলে বছরের অর্ধেক সময়ই জলাবদ্ধ থাকে মাঠটি। এ দুরাবস্থার কথা স্বীকার করলেন অধ্যক্ষ অধ্যাপক রুহুল আমীন ভুইয়া। তিনি জানান, মাঠটি আগের অবস্থায় ফিরিয়ে নিয়ে শিক্ষার্তীরা যেন খেলাধুলা করতে পারে। এছাড়া বিভিন্ন অনুষ্ঠানসহ সাংস্কৃতি চর্চায় মাঠটি যেন কাজে লাগানো যায় সে প্রচষ্টা করা হচ্ছে।

দ্রুত মাঠটি সংস্কার করে খেলার উপযোগী করার দাবি শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও স্থানীয়দের।