সুজন মজুমদারঃ বরুড়া উপজেলার লক্ষিপুর ইউনিয়নের নিশ্চন্তপুর গ্রাম থেকে গত (৯ নভেম্বর) রাত আনুমানিক ৩ টার দিকে মালিককে ঘরের দরজার বাহির অংশে লক করে ২ লক্ষ ৫০ হাজার টাকার মূল্যের ৪টি গরু চুরি করে পিকআপভ্যানে করে নিয়ে যায়।

চুর গরু নিয়ে পালি যাওয়ার সময় গরুর শব্দ শুনে গরুর মালিক আবুল কালাম ঘরের দরজা দিয়ে বের হতে না পেরে, ঘরের জানালা ভেঙ্গে কালামের ছেলে মেহেদী হাসান বের হয়ে পিকআপভ্যানকে ধাওয়া করে।

এ সময় তাদের চিৎকারে গ্রামবাসী এগিয়ে অাসে। ততক্ষনে চুর গরু নিয়ে এলাকা ছেড়ে পালিয়েছে। পরের দিন নলুয়া চাদপুর গ্রামের জনৈক হায়দার অালী গরুসহ পিকআপভ্যান চালক চিনতে পেরে গরু মালিককে অবহিত করে।

পরে খোজ নিয়ে জানা গেছে, ঐ পিকআপভ্যান নিশ্চিন্তপুর গ্রামের আ: রহমানের এবং চালক আ: কাদের। পরে পিকআপভ্যানের মালিক ও চালককে গ্রামবাসীরা জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডাকে। এ সময় স্থানীয় ইউপি সদস্য গ্রামবাসীর উত্তেজনা দেখে বিষয়টি পরের দিন সকালে শালিশ করার সিদ্ধান্ত দেন।

এ বিষয়ে ইউপি সদস্য হারুনুর রশিদ জানান, চুরির ঘটনায় স্থানীয়ভাবে মিমাংশা করার সিদ্ধান্তকে বৃদ্ধাঙলী দেখিয়ে গাড়ীর মালিক তালবাহানা করে। এদিকে বরুড়া থানা পুলিশের এ এস আই উত্তম কুমার খবর পেয়ে চুরি ঘটনায় সন্দেহে ব্যবহৃত পিকঅাপভ্যানের নম্বরঃ ঢাকা মেট্রো -ন ১৫-৬০৭৫ আটক করে। বর্তমানে গাড়ীটি বরুড়া থানা পুলিশের হেফাজতে রয়েছে। তিনি আরও বলেন, ঘটনা রহস্য উৎঘাটন করে এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ ঘটনায় ভিক্টিম বরুড়ায় থানায় একটি লিখিত দায়ের করেন। বিষয়টি তদন্তাধিন রয়েছে।