শনিবার দুপুরে কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার নাজিরা বাজার ঘোষ নগর এলাকায় স্বামীর সাথে মোবাইল ফোনে ঝগড়া করে গলায় উড়না পেচিয়ে সিলিং ফ্যানের সঙ্গে ঝুলে আত্মহত্যা করে। খবর পেয়ে স্হানীয় দেবপুর পুলিশ ফাঁড়ির এস আই নন্দন চন্দ্র সরকার সঙ্গী ফোর্স সহ লাশ উদ্ধার করে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে ময়নাতদন্তের জন্য প্রেরন করা হয়।

পুলিশ ও স্হানীয় সূত্র জানায় জেলার বুড়িচং উপজেলার ময়নামতি ইউনিয়ন এর ঘোষনগর গ্রামের মৃত চেরাগ আলীর ছেলে সার্জেন্ট অবঃ জয়নাল আবেদীনের সঙ্গে গত ৫-৬ মাস পূর্বে বিয়ে হয় একই এলাকার ছিদ্দিকুর রহমানের মেয়ে ফারহানা খালিদ তানিয়া। সার্জেন্ট অবঃ জয়নাল আবেদীন এর স্ত্রী ফারহানা। জয়নাল আবেদীন সম্প্রতি ঢাকায় একটি প্রাইভেট কোম্পানিতে চাকুরী করেন।

শনিবার বেলা ১১ টায় ফারহানা খালিদ তানিয়ার সঙ্গে স্বামীর মোবাইলে কথা কাটা কাটি হয় এবং মান অভিমানের সৃষ্টি হয়। পরে বাড়ির লোকজনের অজান্তে ঘরের দরজা জানালা বন্ধ করে করে দেয়। এক পর্যায়ে ঘরের সিলিং ফ্যানের সঙ্গে গলায় উড়না পেচিয়ে ঝুলে আত্মহত্যা করে। বাড়ির লোকজন ঘরের দরজা জানালা বন্ধ দেখে দেবপুর ফাঁড়ির পুলিশ কে খবর দেয়। খবর পেয়ে বুড়িচং থানার দেবপুর ফাঁড়ির এস আই নন্দন চন্দ্র সরকার সঙ্গীয় ফোর্স সহ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরন করা হয়। এঘটনায় বুড়িচং থানায় শনিবার রাতে একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে।

বুড়িচং থানার ওসি তদন্ত মোঃ মাসুদ খাঁন বলেন ময়নাতদন্তের রিপোর্ট প্রাপ্তি সাপেক্ষ প্রকৃতি কারন জানা যাবে।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: