মাদ্রাসা ছাত্রের নিখোঁজের দশ দিনে ও সন্ধান মেলেনি। ঘটনাটি ঘটেছে কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার সদর ইছাপুরা গ্রামের হাফেজিয়া মাদ্রাসার ফাহিম গত ২৭ জুলাই নিজ বাড়ি ইছাপুরা থেকে বের হয়ে আর বাড়ি ফিরে যায় নি। গত ৩০ জুলাই বুড়িচং থানায় একটি সাধারণ ডাইরি করা হয়েছে।

পুলিশ ও স্হানীয় সূত্র জানায় জেলার বুড়িচং উপজেলার ষোলনল ইউনিয়ন এর ইছাপুরা গ্রামের আব্দুল হান্নানের ছেলে স্হানীয় সদর ইছাপুরা গ্রামের হাফেজিয়া মাদ্রাসার ছাত্র মোঃ ফাহিম (১৩) গত ২৭ জুলাই বাড়ি থেকে বের হয়ে আর ফিরে আসে নি। বহু খোঁজা খোজি করে কোথাও না পেয়ে গত ৩০ জুলাই বুড়িচং থানায় একটি সাধারণ ডাইরি করা হয়। ফাহিমের মা ফাতেমা বেগম ও বড় ভাই রিয়াদ হোসেন জানান ফাহিমের নিখোঁজের বিষয়টি তাদের বেশ চিন্তিত করে ফেলেছে। এলাকায় জমি জমা নিয়ে বিরোধ রয়েছে।

ফাহিম নিখোঁজের পূর্বে এলাকার একটা চক্র পূর্ব বিরোধ কে কেন্দ্র করে তাদের উপর হামলা চালিয়ে আহত করে। স্হানীয় লোকজন এগিয়ে এসে তাদের কে উদ্ধার করে বুড়িচং উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। ওই চক্রটি তাদের বিভিন্ন ভাবে হুমকি ধুমকি দেয় এর কয়েক দিন পর ফাহিম নিখোঁজ হয়। রিয়াদ হোসেন বলেন গত দশ দিন ধরে আমার ভাই নিখোঁজ এখন পর্য়ন্ত উদ্ধার না হওয়ায় আমার মা বিছানায় শয্যা শায়িত।

এ ব্যপারে বুড়িচং থানার এস আই মেহেদী হাসান বলেন মাদ্রাসা ছাত্র ফাহিম নিখোঁজ সংক্রান্ত বিষয়ে একটি জিডি দায়ের করা হয়েছে। নিখোঁজ মাদ্রাসা ছাত্র ফাহিমের খোঁজ এবং উদ্ধারে পুলিশি অভিযান চলমান অব্যহৃদ আছে।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: