আশিকুর রহমানঃ কুমিল্লার ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার শশীদল ইউনিয়নের সাজঘর উত্তর পাড়া গ্রামে চান্দলা মন্দবাগ সড়ক সংলগ্ন সরকারি খালের পাশে দীর্ঘদিন যাবত অবৈধ ড্রেজার মেশিন দিয়ে মাটি উত্তলন করায় পরিবেশ ও সরকারি খাল হুমকীর মুখে পড়েছে।

সরজমিনে ঘুরে ও এলাকাবাসীর সাথে কথা বলে জানা গেছে, উপজেলা সাজঘর উত্তর পাড়া গ্রামের মৃত আব্দুর রাজ্জাকের ছেলে মাটি ব্যবসায়ী মো. মানিক মিয়া দীর্ঘদিন যাবত চান্দলা টানাব্রীজ-মন্দবাগ সড়কের সংলগ্ন সরকারি খাল ঘেষে সাজঘর উত্তর পাড়া গ্রামে জমি বিশাল আকৃতির একটি গর্ত খুড়ে মাটি উত্তলন করে বিভিন্ন জায়গায় বিক্রি করে আসছে। এ অবস্থায় ঐ জায়গার আসে পাশের জমি ও পাশ্ব ঘেষে যাওয়া সরকারি খাল হুমকীর মুখে পড়েছে।

এ ব্যাপারে ঐ এলাকার নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েক জন লোক জানান, মাটি ব্যবসায়ী মানিক মিয়া এলাকাবাসীর কথা তোয়াক্কা না করে চন্দলা-মন্দবাগ খাল ঘেষে জমিতে অবৈধ ড্রেজার মেশিন লাগিয়ে প্রায় ৩০/৩৫ ফোটের মত গভীর করে বিভিন্ন জায়গায় মাটি বিক্রয় করে আসছে। তার এই বিশাল আকারে গর্ত খুড়ে মাটি বিক্রয় ও জমির গভীরতার কারণে আমাদের আশে পাশের জমি গুলো জন্য এখন হুমকী হয়ে দাড়িয়েছে। এছাড়া সরকারী খাল ঘেষে চন্দলা-মন্দবাগ সড়কটিও হুমকীতে পড়েছে। আমরা বিভিন্ন সময়ে তাকে মাটি খুড়ার বিষয়ে বাধা প্রদান করলে সে আমাদের কথা কোন প্রকার পাত্তা না দিয়ে তার কাছ সে চালিয়ে যাচ্ছে।

এব্যাপারে মাটি ব্যবসায়ী মানিক মিয়া বলেন, আমার জায়গা থেকে আমি মাটি উত্তলন ও বিক্রয় করছি। কারো কোন ক্ষতি হলে সেটা আমার দেখার বিষয় নয়।

এই বিষয়ে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) জাফর সাদিক চৌধুরী বলেন, আমি বিষয়টি শুনেছি এবং তাৎক্ষণিক ভাবে মাটি ব্যবসায়ী মানিক মিয়াকে নোটিশ করে মাটি উত্তলনের কার্যক্রম বন্ধ করে দিয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।