সামাজিক দূরত্ব ও স্বাস্থ্যবিধি না মেনে দোকান কিংবা প্রতিষ্ঠান পরিচালনা করলে তাৎক্ষণিক আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। গতকাল মঙ্গলবার কুমিল্লার ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলা সদর বাজারে করোনা সংক্রমণ রোধে সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিতকরণ ও ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান পরিচলানাকালে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফৌজিয়া সিদ্দিকা এ কথা বলেন।

বিজ্ঞাপন

তিনি বলেন, সরকারি নির্দেশনা মেনেই সীমিত আকারে দোকানপাট ও শপিংমল খোলার ব্যবস্থা করা হয়েছে। ইতোমধ্যে লক্ষ করা গেছে যেসব ক্রেতা শপিং করতে এসেছেন তারা অনেকেই মাস্ক না পরে এবং স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ না করেই কেনাকাটা করছেন। মার্কেটের দোকান গুলোতে জীবাণুনাশক স্প্রে করা হচ্ছে না। পাশাপাশি সামাজিক গুরুত্ব বজায় রাখার হচ্ছে না।

নির্বাহী কর্মকর্তা ফৌজিয়া সিদ্দিকা বলেন, আমরা এই মুহূর্তে সবচেয়ে বেশি স্বাস্থ্যঝুঁকিতে আছি। তাই কোনো ভাবেই বেখেয়াল হলে চলবে না। আজকের পর যদি কেউ সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে না পারেন, স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে না পারেন, সেক্ষেত্রে ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে এবং মার্কেট কর্তৃপক্ষকে অনুরোধ করব- তাৎক্ষণিক দোকান কিংবা প্রতিষ্ঠানটি বন্ধ করে দেবেন।

এছাড়াও অভিযান চলাকালে সামাজিক দূরত্ব ও স্বাস্থ্যবিধি না মেনে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান পরিচালনা করার অপরাধে নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফৌজিয়া সিদ্দিকা এবং নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোহাম্মদ জাফর সাদিক চৌধুরী বিভিন্ন অংকে নগদ অর্থ জরিমানা করেন।

এসময় থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আজম উদ্দিনের নেতৃত্বে এস আই যুযুৎসু যশ চাকমা, এস আই রাজু আহম্মেদ সহ পুলিশের একটি দল অভিযানে অংশ গ্রহন করেন।