মো: ওমর ফারুকঃ কুমিল্লার লালমাই উপজেলার ভোলইন উত্তর ইউপির বড়তুলা গ্রামে এক ১৭ বছরের কিশোরের সাথে একই গ্রামের প্রবাসী ২৭ বছরের যুবতীর বিয়ে হয়েছে। এই ঘটনায় এলাকাজুড়ে ব্যাপক চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে।

জানা যায়, বড়তুলা গ্রামের মো,মুক্তার হোসেনের ছেলে শাহপরান( ১৭) একই বাড়ীর মোঃ আবুল হোসেনের মেয়ে প্রবাসী বিউটি বেগমের বিয়ের খবর এলাকাজুড়ে চাঞ্চল্যয সৃষ্টি হয়েছে। এই বিষয়ে জুলাই ২৯ মুক্তার হোসেন অভিযোগ করে বলেন,তার ছেলে শাহপরানের বয়স ১৭ বছর বিউটিরর বয়স ২৭ বছর।

শাহপরান অভিযোগ করে বলেন, বিউটির দুলা ভাই খলিলসহ স্থানীয় কিছু লোকজন ২৬ জুন তাকে রাস্তা থেকে ধরে নিয়ে জোর পূর্বক ৪ লাখ টাকা কাবিন রেজিস্ট্রি করে বিয়ে দেন। এই ব্যাপারে মুক্তার হোসেন আরও বলেন, ছেলের বয়স যেহেতু কম এইটা বাল্য বিয়ের আওতাভুক্ত হয়। প্রয়োজনে আইনের আশ্রয় নিবো। অভিযুক্ত বিউটির বাবা আবুল হোসেন বলেন, ছেলে মেয়ে পালিয়ে গিয়ে ৪ লাখ টাকা কাবিনে বিয়ে করে।

ভোলইন ইউপির কাজী আবুল কালাম বলেন, বিয়ের সময় সকল কাগজপত্র জমা দেয়ার কারনে বিয়ের কাজ সম্পূর্ণ করেছি। কিছু দিন পর সফিক নামে এক লোক এসে তার জন্মনিবন্ধন দেখায় ওই খানে শাহপরানের অপ্রাপ্ত বয়সের প্রমাণ দেখান। মেয়ের পরিবারকে বলেছি যদি কাগজপত্র গরমিল থাকে তাহলে তারা কাবিননামা পাবেনা।