নিজস্ব প্রতিবেদকঃ কুমিল্লায় যানজট নিরসনে শাসনগাছা রেলওয়ে ওভারপাসের নির্মাণ কাজ শেষ হওয়ার কথা গত বছরের জুন মাসে। কিন্তু ধীরগতির কারণে এখনও কাজ শেষ হয়নি। আর এ নির্মাণ কাজের জন্য শুষ্ক মৌসুমেই এ সড়কে চলাচল করতে কষ্ট হয়, আর বর্ষাকালে চলাচল নিয়ে অনিশ্চয়তার মধ্যে এলাকাবাসী ও যানবাহন চালকরা। ফলে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে কুমিল্লাবাসীর।

তবে এ দুর্ভোগ খুব শীঘ্রই শেষ হওয়ার আশ্বাস পাওয়া গেছে। সব কিছু ঠিক থাকলে আগামী মাসেই সকলের জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়া হবে কুমিল্লাবাসীর বহুল প্রতিক্ষিত ফ্লাইওভারটি।

জানা গেছে, ৫০ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত হচ্ছে ৬৩১ মিটার দীর্ঘ শাসনগাছা রেলক্রসিং ফ্লাইওভার। নির্মাণ এলাকায় সড়কে বড় বড় গর্তের সৃষ্টি হয়ে সারাবছরই পানি জমে থাকে। ফরে বিভিন্ন সময় দুর্ঘটনায় পড়ছে বিভিন্ন যানবাহন।

কুমিল্লা থেকে রাজধানী ঢাকা, সিলেট, ব্রাহ্মণবাড়ীয়া এবং জেলার চান্দিনা, দেবিদ্বার, মুরাদনগর, হোমনা, তিতাস, মেঘনা, দাউদকান্দিসহ বিভিন্ন উপজেলা যাতায়াতের জন্য গুরুত্বপূর্ণ বাসস্ট্যান্ড শাসনগাছা বাসস্ট্যান্ড। দীর্ঘদিন ধরে শহর থেকে বের হওয়ার পশ্চিম দিকের এই সড়কটিতে যানজটে অতিষ্ঠ নগরবাসীর দাবির প্রেক্ষিতে রেসকোর্স থেকে শাসনগাছা পর্যন্ত ফ্লাইওভারের কাজ শুরু হয় প্রায় দুবছর আগে। তবে নির্মাণ কাজ সঠিক সময়ে শেষ না হওয়ায় ও সড়কে নির্মাণ সামগ্রী রাখায় সড়কটি এখন পরিণত হয়েছে নাগরিক সমস্যায়।

এ বিষয়ে কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মনিরুল হক সাক্কুর বলেন, আমি হজে যাওয়ার আগে প্রকৌশলীদের সাথে কথা বলেছিলাম, হজ থেকে আসার পরও তাদের নিয়ে বসেছি। তারা বলছেন বর্তমানে কাজের যে অবস্থা নভেম্বরের প্রথম সাপ্তাহে আমরা ফ্লাইওভারটি উদ্বোধন করতে পারব। তিনি বলেন, শাসনগাছা রেলক্রসিং এ যানজটের দুর্ভোগ কমাতে এটি কুমিল্লাবাসীর একটি দাবি ছিল।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: