ছবিঃ প্রতীকী

কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে গলায় ছুরি ধরে মাদরাসাছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে এক যুবকের বিরুদ্ধে। সোমবার (১২ এপ্রিল) ওই উপজেলার পেরিয়া ইউনিয়নের মাধবপুরে এ ঘটনা ঘটে।

অভিযুক্ত কাউছার মজুমদার ওই গ্রামের রবিউল হক মজুমদারের ছেলে।

ধর্ষণের শিকার ছাত্রীর বাবা বলেন, আমার মেয়ে প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে বাড়ির বাইরের টয়লেটে যায়। ওই সময় কাউছার তার মুখ চেপে ধরে তুলে নিয়ে যায়। এতে আমার মেয়ে চিৎকার দিলে সে গলায় ছুরি ধরে ধর্ষণ করে। এরপরও আমার মেয়ে ধস্তাধস্তি করতে থাকে। এক পর্যায়ে সে নাকে আঘাত পেয়ে চিৎকার করে। আমরা ছুটে গিয়ে তাকে রক্তাক্ত অবস্থায় পাই।

তিনি আরো বলেন, আমি অসুস্থ মেয়েটিকে নিয়ে কাউছার মজুমদারের বাড়ি যাই। কিন্তু তার পরিবার এর বিচার না করে উল্টো আমার মেয়ের জামাকাপড় পানি দিয়ে ধুয়ে প্রমাণ লোপাটের চেষ্টা করে। আমি থানায় যাওয়ার কথা বললে তারা আমাকে উল্টো দেখে নেয়ার হুমকি দেয়। এই কাউছার এর আগেও আমার মেয়েকে বিরক্ত করছে। আমি তাকে সতর্ক করায় সে ক্ষিপ্ত হয়ে আমার মেয়ের সর্বনাশ করেছে।

নাঙ্গলকোট থানার ওসি মো. বখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী বলেন, ধর্ষণের ঘটনায় মামলা হয়েছে। ধর্ষণের শিকার ছাত্রীর ডাক্তারি পরীক্ষা ও জবানবন্দি নেয়া হয়েছে। এখন অভিযুক্ত কাউছার মজুমদারকে গ্রেফতারে আমরা অভিযান চালাচ্ছি।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: