কুমিল্লার বরুড়ায় গার্মেন্টসকর্মীকে অপরহণ করে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে ৬ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শুক্রবার (১৭ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় উপজেলার ঝলম ইউনিয়নের নোয়াদ্দা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় ভুক্তভোগী গার্মেন্টসকর্মী বাদী হয়ে ৭ জনের নাম উল্লেখ করে বরুড়া থানায় ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে একটি মামলা দায়ের করেন।

বরুড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ইকবাল বাহার মজুমদার শনিবার রাতে বার্তা২৪.কম’কে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন- উপজেলার নোয়াদ্দা গ্রামের মৃত জহুর আলীর ছেলে মো. বাচ্ছু মিয়া (৪৯), একই এলাকার মৃত কামাল হোসেনের ছেলে আশ্রাফুল আলম শরীফ (৩০), মো. রুহুল আমিনের ছেলে রাসেল (৩২), বাচ্ছু মিয়ার ছেলে অরুন (২৩), একই ইউনিয়নের বিল পুকুরিয়া গ্রামের কামাল হোসেনের ছেলে মো. সোহাগ হোসেন (২৪), আমির হোসেনের ছেলে ইমতিয়াজ রনি (২০)।

ওসি মো. ইকবাল বাহার মজুমদার বলেন, বিল পুকুরিয়া গ্রামের মোর্শেদ নামে এক যুবক গার্মেন্টসকর্মী তরুণীকে প্রেমের প্রস্তাব দেয়। কিন্তু ওই তরুণী প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেন। শুক্রবার বিকেলে ভুক্তভোগী তরুণী তার কর্মস্থল থেকে বাড়ি ফেরার পথে মোর্শেদের নেতৃত্বে তাকে অপহরণ করে তুলে নিয়ে যায় নোয়াদ্দা গ্রামের একটি ফিশারীর পাড়ে।

সেখানে বেশ কয়েকজন মিলে তাকে ধর্ষণের চেষ্টা করা হয়। এ ঘটনায় সন্ধ্যায় ওই তরুণীবাদী হয়ে ৭ জনের নাম উল্লেখ করে একটি মামলা করেন। এ ঘটনায় এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৬জনকে গ্রেফতার করা হয়। ঘটনার নেতৃত্বেদানকারী মোর্শেদ পতালক রয়েছে। রোববার (১৯ সেপ্টেম্বর) সকালে গ্রেফতারদের আদালতের মধ্যে কুমিল্লা কারাগারে পাঠানো হবে বলে তিনি জানান।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: