বরিশাল থেকে কুমিল্লায় এসে প্রেমিকের সন্ধান না পেয়ে আবু ছাহিদ নামে ১০ মাসের এক শিশুকে অপহরণ করেন সাবিনা আক্তার (২০) নামে এক তরুণী। শিশুটিকে ফিরিয়ে দিতে প্রেমিক ফারুকের সঙ্গে দেখা করানোর শর্ত দেন তিনি। সোমবার (০৬ সেপ্টেম্বর) রাতে চান্দিনার মাইজখার গ্রামের মোহার আলীর বাড়ি থেকে শিশুটিকে তিনি অপহরণ করেন।

পরবর্তীতে শিশুটির পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় অভিযোগ দিলে তথ্য-প্রযুক্তির মাধ্যমে থানা পুলিশ ও ডিবি পুলিশ যৌথ অভিযান পরিচালনা করে। মঙ্গলবার (০৭ সেপ্টেম্বর) সকালে মাওয়া ঘাট থেকে ওই তরুণীকে আটক করে শিশুটিকে উদ্ধার করে পুলিশ। এ সময় প্রেমিক ফারুকের সঙ্গে দেখা হলেও শিশু অপহরণের অভিযোগে থানায় সাবিনা আক্তার।

জানা গেছে, চান্দিনা উপজেলার মাইজখার গ্রামের মো. ফারুকের সঙ্গে সাবিনা আক্তারের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। সম্প্রতি তুচ্ছ ঘটনা নিয়ে মনোমালিন্য হলে যোগাযোগ বন্ধ করে দেন ফারুক। দীর্ঘদিন প্রেমিকের খবর না পেয়ে প্রেমের টানে বরিশালের কাউনিয়া উপজেলার দিবাকার গ্রাম থেকে কুমিল্লার চান্দিনা উপজেলার মাইজখার গ্রামে এসে হাজির হন সাবিনা। তিনি প্রেমিকের বাড়ি গেলেও তার দেখা পাননি। ফারুকের পরিবারের লোকজনও তাকে পাত্তা দেয়নি।

এ সময় উপায় না পেয়ে ফারুকের প্রতিবেশী মো. এরশাদুল হকের বাড়িতে আশ্রয় নেন সাবিনা। দুই দিন ঘোরাঘুরি করেও প্রেমিক ফারুকের সন্ধান পাননি তিনি। অবশেষে প্রতিবেশী এরশাদুল হকের ১০ মাসের শিশু সন্তান আবু ছাহিদকে নিয়ে পালিয়ে যান সাবিনা। যোগাযোগ করলে তিনি শর্ত দেন প্রেমিক ফারুককে তার সামনে হাজির করতে হবে। তাহলে শিশুটিকে ফেরত দেবেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে কুমিল্লা জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের এসআই পরিমল চন্দ্র দাস বলেন, মঙ্গলবার সকালে অভিযান পরিচালনা করে সাবিনা আক্তারকে আটক করা হয়েছে।

চান্দিনা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আরিফুর রহমান বলেন, শিশুটিকে মাওয়া থেকে চান্দিনায় আনা হয়েছে। এ ঘটনায় অপহরণকারীকে আটক করা হয়েছে। এ বিষয়ে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: