কুমিল্লায় প্রেম করে বিয়ে করার পর পরিবারের লোকজন মেনে না নেওয়ায় স্বামী-স্ত্রী দুজনই বিষপান করে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন। গতকাল সোমবার (২৫ জুলাই) রাতে জেলার আদর্শ সদর উপজেলার দৌলতপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

স্বামী সাজ্জাদ ভূঁইয়া বিজয় আদর্শ সদর উপজেলার দৌলতপুর এলাকার ফরহাদ আহমেদ ভূঁইয়ার ছেলে এবং স্ত্রী নূরুন্নাহার সামিয়া বলরামপুর এলাকার ব্যবসায়ী মাসুদুর রহমানের মেয়ে।

বিষয়টি সংবাদমাধ্যমকে নিশ্চিত করে ফরহাদ আহমেদ ভূঁইয়া বলেন, আমার ছেলের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে পার্শ্ববর্তী বলরামপুর এলাকার মাসুদুর রহমানের মেয়ে সামিয়ার। পরিবারের অমতে তারা পালিয়ে বিয়ে করেছে।

সামিয়া অপ্রাপ্তবয়স্ক হওয়ায় তার পরিবার সে বিয়ে মেনে না নিয়ে বিজয়ের বিরুদ্ধে অপহরণ মামলা করেন। ওই মামলায় বিজয় বেশ কিছুদিন জেল খাটার পর আদালতে পালানোর কথা স্বীকার করে জবানবন্দি দেয় সামিয়া। পরে আদালত বিজয়কে জামিন দিয়ে সামিয়াকে তার বাবার কাছে হস্তান্তর করেন।

এদিকে সামিয়ার পরিবার তাকে স্কুলে যাওয়া বন্ধ করে দিয়ে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করলে গত রোববার (২৪ জুলাই) বিজয়ের কাছে চলে আসে। এ ঘটনার পর সামিয়ার পরিবার তাকে ফোন করে ধমক দিলে তারা উভয়ে আত্মহত্যার সিদ্ধান্ত নেয়। পরে সোমবার রাতে ফেসবুকে লাইভে এসে বিস্তারিত ঘটনা তুলে ধরে উভয়ে বিষপান করে। স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। বর্তমানে দুজনই শঙ্কামুক্ত।

কুমিল্লা কোতোয়ালি মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সহিদুর রহমান বলেন, বিষয়টি শোনার পর ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়েছি। তারা উভয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। এ বিষয়ে যেহেতু আদালতে মামলা চলছে পুলিশের কিছু করার নেই। তবুও আমরা বিষয়টি সমাধানের চেষ্টা করেছি।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: