কুমিল্লায় রোকসানা আক্তার (৩৫) নামে এক নারীকে তার স্বামী দেলোয়ার হোসেন কুপিয়ে হত্যা করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে কুমিল্লা সদর উপজেলার পালপাড়া গ্রাম থেকে ওই নারীর লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেছে পুলিশ।

নিহত রোকসানা কুমিল্লা নগরীর একটি বেসরকারি কিনিকে আয়া হিসেবে কাজ করতেন। তাঁর স্বামী দেলোয়ারের বাড়ি পালপাড়া গ্রামে। পেশার পরিবহন শ্রমিক ছিলেন দেলোয়ার। প্রাথমিকভাবে জানা গেছে, পারিবারিক কলহ নিয়ে এই হত্যার ঘটনা ঘটেছে। নিহত রোকসানার এক ছেলে ও এক মেয়ে রয়েছে।

মেয়ে স্বর্ণা জানায়, বিয়ের পর থেকে তার বাবা প্রায়ই বিভিন্ন অজুহাতে তার মাকে শারিরিক নির্য়াতন করতো। এজন্য সন্তানদের নিয়ে আলাদা বাসায় থাকতেন তিনি। বৃহস্পতিবার আমরা ভাই-বোন নানার বাড়ি সদর উপজেলার বদরপুরে ছিলাম। এজন্য রাতে বাবা মনে হয় মাকে তার বাসায় নিয়ে গিয়েছিলো। এরপর দাম্পত্য কলহের জের ধরে বাবা দেলোয়ার তার মাকে খুন করে।

শুক্রবার সন্ধ্যায় কুমিল্লা কোতয়ালী মডেল থানার ছত্রখীল ফাঁড়ির ইনচার্জ শরিফুর রহমান জানান, খবর পেয়ে আমরা ওই নারীর লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করি। নিহতের শরীরের পাঁচটি অংশে ধারালো আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। এ ঘটনায় এখনো মামলা হয়নি।

ইউটিউবে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন: